• প্রচ্ছদ » » সমগ্র দক্ষিণ এশিয়া যখন কাশ্মীর


সমগ্র দক্ষিণ এশিয়া যখন কাশ্মীর

আমাদের নতুন সময় : 10/08/2019

আলতাফ পারভেজ

নেককেই দেখছি, কাশ্মীরে সামরিক ও আইনি আগ্রাসনের বিরোধিতা করতে গিয়ে ভারতীয় নাগরিকদের বিরুদ্ধে ক্ষোভের প্রকাশ ঘটাচ্ছেন। এ রকম বোকা মানুষগুলোই দক্ষিণ এশিয়ার বোঝা। বিজেপি ঠিক এটাই চাইছে। কারণ এটা ঘটলেই বাংলাদেশের দিকেও তাক করতে তার সুবিধা হয়। মনে রাখতে হবে, কাশ্মীরের বিরুদ্ধে যুদ্ধে নেমেছে একটা বিশেষ রাজনীতি, বিশেষ দল, বিশেষ গোষ্ঠী… যারা এ মুহূর্তে ভারতের শাসন ক্ষমতা দখল করে আছে। সমগ্র ভারত এবং গোটা দক্ষিণ এশিয়া থেকে তাদের আলাদা করতে না পারলে ভুল করা হবে। ৬ আগস্ট এবং সমগ্র ভারতজুড়ে যেসব ছিটেফোঁটা বিক্ষোভ হয়েছে, হচ্ছে এবং সেসব বিভিন্ন ধর্ম-বর্ণের ভারতীয় তরুণ-তরুণীরাই সংগঠিত করছে। সমগ্র ভারত আরএসএস-বিজেপি এবং ভারতীয় সামরিক-বেসামরিক আমলাতন্ত্রের সিদ্ধান্ত মেনে নিয়েছে বা নেবে এমন ভাবার কারণ নেই। নিঃসন্দেহে ভারতে সাম্য-মৈত্রী-স্বাধীনতার রাজনৈতিক ধারা দুর্বল হয়ে গেছে। যেমনটি হয়েছে বাংলাদেশেও। কিন্তু তাকে পুনর্গঠিত হতে হবে। মনে রাখা জরুরি যে, সমগ্র ভারত আজ কাশ্মীর। ভারতের বহু তরুণ-তরুণী যুদ্ধের এই নতুন চ্যালেঞ্জটি গ্রহণ করেছে। তাদের পাশে থাকুন। গড়ে ভারতীয় সবাইকে সাম্প্রদায়িক-যুদ্ধবাদী-জাতিবাদী বানিয়ে দেবেন না। ভিন্নধারার মানুষদের খুঁজুন। তাদের দিকে মৈত্রীর হাত বাড়ান। সংগ্রামটি কিন্তু দেশ নয়… পুরো অঞ্চলজুড়ে। সেই বোধ ছাড়া কিছুই এগোবে না। আরও মার খেতে হবে। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]