• প্রচ্ছদ » » মা বলতেন, প্রতিবেশীদের বাসায় গিয়ে মাংসগুলো দিয়ে আয়


মা বলতেন, প্রতিবেশীদের বাসায় গিয়ে মাংসগুলো দিয়ে আয়

আমাদের নতুন সময় : 11/08/2019

মে. জে. (অব.) আব্দুর রশিদ

কোরবানির সব কাজ যখন শেষ হয়ে যেতো তখন মা একটি ট্রেতে গোশত সাজিয়ে হাতে ধরিয়ে দিয়ে বলতেন, প্রতিবেশীদের বাসায় গিয়ে গোশতগুলো দিয়ে আয়। আমি তখন সবার বাসায় বাসায় গিয়ে মাংস দিয়ে আসতাম। প্রতিবেশীদের সঙ্গে খুব ভালো সম্পর্ক ছিলো, তা আমার কাছে সবচেয়ে বেশি ভালো লাগতো। এই সময়ে তেমনটি দেখি না। ঢাকায় তা তো দেখি না বললেই চলে। কোরবানি শেষে গ্রামের দরিদ্র পরিবার থেকে নারী-পুরুষ সবাই মাংস নেয়ার জন্য সবার বাড়িতে গিয়ে মাংস সংগ্রহ করতো। তাদের অনেকেরই সারাবছর গোশত কিনে খাওয়ার সামর্থ্য ছিলো না। এক ঈদে একজন বৃদ্ধ লোককে মাংস দেয়ার সময় তিনি বলেছিলেন, ‘বাবা আমি মাংস কিনে খেতে পারি না। শুধু কোরবানির ঈদে মাংস খেতে পারি।’ তখন মাকে বলে আরও কিছু মাংস বৃদ্ধ লোকটিকে দিয়েছিলাম। ওই ঘটনা আজও মনে পড়ে, স্মৃতিতে ভাসে। পরিচিতি : নিরাপত্তা বিশ্লেষক। মতামত গ্রহণ : শরিফুল ইসলাম।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]