বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় অনেকটাই সফল দুই সিটি করপোরেশন

আমাদের নতুন সময় : 15/08/2019

সুজিৎ নন্দী : মাঠপর্যায়ে কর্মী সংখ্যা বাড়ানো ও তাদের ওপর নজরদারি এবং দক্ষ ব্যবস্থাপনার কারণে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে কোরবানির পশুর বর্জ্য অপসারণে অনেকটাই সফল হয়েছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) ও ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)। মিরপুর, কল্যানপুর, ধানমন্ডি, কলাবাগান, মোহাম্মদপুর, পুরানো ঢাকার বেশির ভাগ এলাকায় পরিষ্কার দেখা গেছে। সে ক্ষেত্রে দক্ষিণ কল্যানপুরে গতকালও বর্জ্য দেখা গেছে। ডিএসসিসির পরিচ্ছন্ন বিভাগের একাধিক উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা জানান, পরিচ্ছন্ন বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারিরা ঈদের দিন মধ্য রাত পর্যন্ত অফিসে থেকে একই পরিবারের মতো কাজ করেছি। আমরা সার্বক্ষণিক ওয়াকিটকির মাধ্যমে কর্মীদের খোঁজ-খবর নিয়েছি।
ডিএনসিসির মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেছেন, কোরবানীর বর্জ্য শতভাগ অপসারণ করা হয়েছে। এ বছর মাঠ পর্যায়ে যেমন কর্মীর সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে, তেমনি কঠোর করা হয়েছে মনিটরিং ব্যবস্থাপনা। এতে চ্যালেঞ্জিং হলেও নির্ধারিত সময়ের কয়েক ঘণ্টা আগেই কোরবানির পশুর বর্জ্য অপসারণ সম্ভব হয়েছে।
ডিএসসিসির মেয়র সাঈদ খোকন বলেন, বিগত বছরের বর্জ্য ব্যবস্থাপনার সীমাবদ্ধতাগুলো কথা মাথায় রেখে এবার নতুন আঙ্গিকে পরিকল্পনা করা হয়। পরিকল্পনায় ছিল মাঠকর্মীদের সার্বক্ষণিক পর্যবেক্ষণ এবং কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণ কক্ষের মাধ্যমে কর্মীদের কার্যক্রম নিশ্চিত করা। যেটাতে আমরা সফল হয়েছি। তিনি আরো বলেন, আমি নিজেও বিকেল থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত লাইভ মনিটরিংগুলো পর্যবেক্ষণ করেছি। এর ফলে পর্যাপ্ত কর্মী এবং সঠিক মনিটরিং ও কলিং সিস্টেমে নাগরিকদের মতামতের ভিত্তিতে আমরা সেবা নিশ্চিত করতে পেরেছি। হটলাইনে প্রচুর সাড়া পেয়েছি। এতে যেসব স্থানে আমাদের কর্মীরা যেতে পারেনি সেসব স্থানেও ঠিকানা জেনে কর্মী পাঠাতে পেরেছি। এ কারণে নির্ধারিত সময়ে শতভাগ বর্জ্য অপসারণ করেছি।
ডিএনসিসির একাধিক ওয়ার্ড কাউন্সিলর বলেন, এবার বর্জ্য ব্যবস্থাপনাকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে গ্রহণ করেছিলাম। যে কারণে সকল কর্মকর্তার ছুটি বাতিল করে শত শত পরিচ্ছন্নতাকর্মীকে পরিষ্কার করেছি। একই সঙ্গে মনিটরিং করেছি। এখনো মনিটরিং করা হচ্ছে।
কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, এবছর সংস্থাটিতে নিজস্ব ২ হাজার ৪শ’ জন নিজস্ব পরিচ্ছন্নতাকর্মীসহ মোট ৯ হাজার ৫০০ জন কর্মী বর্জ্য অপসারণে কাজ করেছেন। এবার প্রায় আড়াই লাখ পশু কোরবানি হয়েছি ওই এলাকায়। তাই ঈদের প্রথম দিন ১৩ হাজার ২৩৪ টন বর্জ্য অপসারণ করেছে সংস্থাটি। এ কাজে খোলা ট্রাক, কন্টেইনার বক্স, কন্টেইনার ক্যারিয়ার, ডাম্পার ট্রাক, কম্পেক্টর, পানির গাড়িসহ ৪৩৮টি যানবাহন ব্যবহার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।
ডিএসসিসির কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, সংস্থাটিতে এ বছর নিজস্ব ৫ হাজার ২৪১ জন পরিচ্ছন্নতাকর্মীসহ মোট ৯ হাজার ৪৯৩ জন কর্মী কাজ করেছেন বর্জ্য অপসারণে। ওই এলাকায় এবছর প্রায় সাড়ে তিন লাখ কোরবানির পশু জবাই হয়েছে। এসব পশুর ১৬ হাজার মেট্রিক টন বর্জ্য সংস্থাটির মাতুয়াইল ল্যান্ডফিলে অপসারণ করা হয়েছে। এ কাজে খোলা ট্রাক, কন্টেইনার বক্স, কন্টেইনার ক্যারিয়ার, ডাম্পার ট্রাক, কম্পেক্টর, পানির গাড়ি ও টায়ার ডোজারসহ ৩৮২টি যানবাহন ব্যবহার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা। সম্পাদনা :সমর চক্রবর্তী




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]