আশ্বিনা আমের মাধ্যমে শেষ হচ্ছে আমের মৌসুম, তিন জেলায় উৎপাদন ৮২১৯১২ টন

আমাদের নতুন সময় : 18/08/2019

তাসকিনা ইয়াসমিন ও মঈন উদ্দীন : আশি^না আম দিয়েই শেষ হচ্ছে ২০১৯ সালের আমের মৌসুম। মে মাসের মাঝামাঝি থেকে জুলাই মাসের শেষ নগাদ রাজশাহী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও নওগাঁয় আমের মৌসুম থাকে। জেলা তিনটির হাটে, মাঠে, পাড়ার অলিগলিতে, পথে-প্রান্তরে, বাগানে-বাগানে শুধুই আম। রাজশাহী শহরের প্রায় দেড় হাজার আম বাগানের ল্যাংড়া, ফজলি, গোপালভোগ, ক্ষীরশাপাত, হিমসাগরসহ আড়াই শ জাতের আমের মৌসুম শেষ হয়েছে আশি^না আম নামানোর মধ্যে দিয়ে। প্রশাসনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সব শেষ ১৭ জুলাই থেকে নামানো ও বাজারজাত শুরু হয় আশ্বিনা জাতের আম। এ সময় রাজশাহীর কৃষিভিত্তিক অর্থনীতি চাঙ্গা হয়ে উঠে। ফল গবেষক ও ব্যবসায়ীদের মতে, চলতি মৌসুমে রাজশাহীতে প্রায় ৬শ কোটি টাকার আম বিক্রি হয়েছে।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর জানায়, চলতি বছর রাজশাহীতে ১৭ হাজার ৪৬৫ হেক্টর জমিতে আম বাগান রয়েছে। ২ লাখ ১৩ হাজার ৪২৬ টন আম উৎপাদন হয়েছে। ব্যবসায়ীরা জানান, চলতি আমের মৌসুমে কালবৈশাখী ঝড় ও পোকার আক্রমণে আমের গুটি নষ্ট হলেও আশানুরূপ লাভ হয়েছে বলে তারা মনে করেন।

এদিকে, আমের কারবার নিয়ে এই তিনটি জেলার লাখো মানুষের মৌসুমী কর্মসংস্থান হয়। আমের মৌসুমে কেউ বাগান পাহারা দেয়, কেউ বাগানের পরিচর্যার কাজ করেছেন। কেউ ভ্যান-ট্রলি চালিয়ে আম পরিবহনের কাজ করেছেন। কেউ আড়ত খুলে বসেন, কেউ প্যাকেট তৈরির কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করেন। কুরিয়ার সার্ভিসগুলোতে ছিলো উপচেপড়া ভিড়। এ ছাড়া আম বাজারজাত করতে ধানের খড়, চটের বস্তা ও ঝুড়ির কদর বেড়েছিল কয়েকগুণ।

আমের রাজধানী চাঁপাইনবাবগঞ্জের বাজারে এখনও রয়েছে আশি^না আমের সমারোহ। আশি^না আমের দামও ভালো। ক্রেতারা বেশ দাম দিয়েই এই আম কিনছেন। ২০১৮-১৯ অর্থবছরে সারাদেশে মোট আমের উৎপাদন ছিলো প্রায় ২৩ লাখ ৭২ হাজার টন। চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি সাহাবুদ্দিন সনু জানান, এবার জেলায় মোট ২ লাখ ৭৫ হাজার টন আম উৎপাদন হয়েছে। বর্তমানে জেলার কানসাটে মৌসুমের আশি^না আম পাওয়া যাচ্ছে। কানসাটের বাগান মালিক নুরুল ইসলাম জানান, ফজলী আমের পরে সবশেষে আশি^না আম বাজারে এসেছে। জেলার ২০ ভাগ বাগান মালিকরা এ আম চাষ করে থাকে। শিবগঞ্জ ও কানসাট এলাকায় এ আমের উৎপাদন বেশি হয়ে থাকে। বর্তমানে পাকা আম ২৭০০-৩০০০ টাকা এবং কাঁচা আম ৩৮০০-৪২০০ টাকা মন দরে বিক্রি হচ্ছে কানসাট বাজারে।

এদিকে, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর চাঁপাইনবাবগঞ্জের উপপরিচালক কৃষিবিদ মো. মঞ্জুরুল হুদা বলেন, শিবগঞ্জ, গোমস্তাপুর ও ভোলাহাট উপজেলায় এ আমের উৎপাদনের পাশাপাশি ফলনও ভাল। নওগাঁ প্রতিনিধি আশরাফুল নয়ন জানান, নওগাঁয় ৩ লাখ ৩৩ হাজা ৪৮৬ টন আম উৎপাদন হয়েছে। সম্পাদনা : রেজাউল আহসান॥

 

 

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]