কাশ্মীরের সমর্থনে টরন্টোয় পাঁচ শতাধিক নাগরিকের বিক্ষোভ

আমাদের নতুন সময় : 19/08/2019

মোহাম্মদ আলী বোখারী, টরন্টো থেকে : ভারত সরকার কর্তৃক সম্প্রতি দক্ষিণ এশিয়ার দীর্ঘ অমিমাংসিত অঞ্চল কাশ্মীরের রাজ্য মর্যাদা বিলুপ্তির প্রতিবাদে টরন্টোর কুইন্স পার্কে অবস্থিত অন্টারিও প্রাদেশিক পার্লামেন্ট চত্বরের দক্ষিণাংশে এক বিক্ষোভ র‌্যালি হয়েছে। গত ১৭ আগস্ট অপরাহ্নে আয়োজিত ওই সমাবেশে পাঁচ শতাধিক স্বতঃস্ফূর্ত নাগরিক ‘জেগে ওঠো ট্রুডো’, ‘মোদী একজন সন্ত্রাসী’ ও ‘আমরা কাশ্মীরের স্বাধীনতা চাই’ শ্লোগানে মুখরিত হয়।

বিশ্বের নানা প্রান্তে চলমান অন্যায়ের প্রতিবাদে সম্মিলিত প্রয়াস হিসেবে সংগঠিত ‘জয়েন্ট ভয়েস’-এর স্থানীয় উদ্যোক্তা হুয়াইদা পারভেজ, আমির কাদরি ও ইমরান খানের যৌথ আহবানে ওই দিন অপরাহ্নে বৃষ্টিমুখর পরিস্থিতেও নির্ধারিত চার ঘন্টার সমাবেশটি যথারীতি তাদের কার্যক্রম পরিচালনা এবং শ্লোগানমুখর হয়ে ডাউনটাউনের কয়েকটি প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণসহ আয়োজনস্থলে ফিরে যায়। এছাড়াও সমাবেশের অপরাপর বক্তারা বর্তমান কাশ্মীরের বিরাজমান মানবাধিকার পরিস্থিতি এবং সংবিধানের অতি আলোচিত অনুচ্ছেদ ৩৭০ বিলোপ ও পরিণতিতে হিমালয় পাদদেশের সংক্ষুব্ধ কাশ্মীর অঞ্চলের ভবিষ্যত নিয়ে সতর্ক বাণী উচ্চারণ করেন। তারা আরো বলেন, ভারত সরকার কাশ্মীরে ৬০ হাজার সেনাবাহিনী প্রেরণের পাশাপাশি কোনো প্রকার পূর্ব-ঘোষণা ছাড়াই সেখানে ইন্টারনেট ও মোবাইল ফোনের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেছে।

পরে সমাবেশ শেষে এই প্রতিনিধিকে এক সাক্ষাতকারে ‘জয়েন্ট ভয়েস’-এর অন্যতম উদ্যোক্তা হুয়াইদা পারভেজ বলেন, ‘প্রকৃতপক্ষে এখানে বাংলাদেশি কমিউনিটি তাদের অভাবনীয় সমর্থন জুগিয়েছে; এমনকী কিছুদিন আগে বাংলাদেশে তারই প্রতিফলন ছিল। সুতরাং আজকে বিপুল মানুষের সংহতির বর্হিপ্রকাশ ঘটেছে, প্রত্যেকেই যোগ দিয়েছেন এবং আমি কানাডিয়ান হিসেবে গর্বিত যে আমরা সোচ্চার হতে পেরেছি, আগামীতেও কাশ্মীরের জন্য তাই করবো, যতক্ষণ না এই যাতনার পরিসমাপ্তি ঘটে।’




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]