• প্রচ্ছদ » » ভারতে রাজনীতির ব্যবসা সুপার হট!


ভারতে রাজনীতির ব্যবসা সুপার হট!

আমাদের নতুন সময় : 19/08/2019

বিপ্লব পাল

সিনেমা, সিরিয়াল, অতীতের নায়িকা, উঠতি নায়িকা… সবাইকে এখন রাজনীতির কাজে লাগানো হচ্ছে। তারাও ভাড়া খাটতে রাজি অভিনয় ফেলে। কারণ তারাও বুঝে গেছেন… রাজনীতির রিয়ালিটির মঞ্চে অভিনয়ে লাভ বেশি। কারণ ভারতে রাজনীতির ব্যবসা সুপার হট। এগুলো সাউথ ইন্ডিয়াতে ছিলো। সেখানে অভিনেতারাই এখন রাজনৈতিক নেতা। মমতা ব্যানার্জী প্রথম এই কালচারটা বঙ্গে ঢোকালেন। এগুলো দেখলেও খারাপ লাগে। কতোশত তৃণমূল নেতা দেখেছি সিপিএম আমলে কি মার খেয়েছে। কিন্তু তৃণমূলের ঝাÐা এরাই উঁচুতে রেখেছিলো। তাদের এখন পার্টি পাত্তায় দেয় না। ক্ষমতা পাওয়ার পর বলা হলো… আর তো সিপিএমের সঙ্গে লড়াই করার দরকার নেই। এখন থেকে কাজ দেবশ্রী, মুনমুন, শতাব্দীর দোপাট্টা ধরে নিজের এলাকায় নায়িকাদের জন্য ভোট চাওয়া। কি দুরবস্থা। তৃনমূলের মেজ সেজ নেতাদের এই যে দলে দলে বিজেপিতে যোগ দেয়া। এটা হবে না কেন? এদের প্রতি মমতা ব্যানার্জী সুবিচার করেননি।
বিজেপিরও সেই অবস্থা। পার্টিটাকে খেটেখুটে দাঁড় করালো কিছু হিন্দুত্ববাদী ছেলেপিলে। তারাও তৃণমূলের হাতে মার খেয়েছে। এখনো খাচ্ছে। আর নেপোর দই খেতে টালিগঞ্জ থেকে নায়িকাক‚ল দলে দলে দিল্লিতে গিয়ে বিজেপিতে নাম লেখাচ্ছে। এদেরও সেই নায়িকাদের দোপাট্টা ধরার কাজ দেবে বিজেপি। রাজনীতি একটা কোরিওগ্রাফি… এখানে সুন্দরী মুখের দরকার ইতিহাস এবং সমাজবিজ্ঞান স্বীকৃত। কিন্তু গø্যামারাস ফেসের সঙ্গে কাজের লোকের ফেস ও দরকার। অনেকটা কোম্পানির বিজ্ঞাপনের মতো। বিজ্ঞাপনে সুন্দরীদের দরকার… কিন্তু প্রোডাক্টটা কাজ না করলে তো বিজ্ঞাপনের খরচই উঠবে না। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]