• প্রচ্ছদ » শেষ পাতা » আব্দুর রশিদ বললেন, রাষ্ট্রযন্ত্র, রাজনৈতিক দল এবং জঙ্গি গোষ্ঠীর সম্মিলিত পরিকল্পনায় একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলা পরিচালিত হয়েছিলো


আব্দুর রশিদ বললেন, রাষ্ট্রযন্ত্র, রাজনৈতিক দল এবং জঙ্গি গোষ্ঠীর সম্মিলিত পরিকল্পনায় একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলা পরিচালিত হয়েছিলো

আমাদের নতুন সময় : 22/08/2019

লিয়ন মীর : একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলা হচ্ছে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে পরিচালিত একটি নির্মম রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাস। আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসবিরোধী র‌্যালি ছিলো এই হামলার লক্ষ্যবস্তু। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী এবং তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেতা শেখ হাসিনা যে ট্রাকের উপর অবস্থান করছিলেন সেই ট্রাককে লক্ষ্য করেই গ্রেনেড ছুড়ে মারা হয়েছিলো, কিন্তু ভাগ্যক্রমে তিনি বেঁচে যান। ২০০৪ সালের একুশে আগস্ট তৎকালীন বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের আমলে ভয়াবহ গ্রেনেড হামলা হয়েছিলো সে সম্পর্কে এমন মন্তব্য করেন নিরাপত্তা বিশ্লেষক মেজর জেনারেল (অব.) আব্দুর রশিদ।

তিনি বলেন, পরবর্তী সময়ে দেখা গেছে, সামরিক বাহিনীতে ব্যবহৃত মানব বিধ্বংসী আর্জেস গ্রেনেড দিয়ে তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেতা শেখ হাসিনার উপর হামলা করা হয়েছিলো। হামলার পরবর্তী সময়ে যে ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছিলো তাতে রাষ্ট্রযন্ত্র ব্যবহার করে হামলার সব আলামত নষ্ট করার প্রচেষ্টা করতে দেখা গেছে। তারপর বিশ^বাসীর চাপে পড়ে তড়িঘড়ি একটি তদন্ত করে একজন জজ মিয়াকে মামলার আসামি করা হয়েছিলো। কিন্তু পরে দেখা গেলো জজ মিয়া একটি সাজানো নাটক। তখন পরিষ্কার হয়ে যায় রাষ্ট্রযন্ত্র, রাজনৈতিক দল এবং জঙ্গিগোষ্ঠী মিলে সম্মিলিতভাবে সুপরিকল্পনা করে একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলা পরিচালনা করে। রাষ্ট্র এবং ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল যখন জঙ্গিগোষ্ঠীর সঙ্গে একজোট হয়ে সন্ত্রাসী হামলা পরিচালনা করে তখন রাষ্ট্রের ভিত্তি নড়বড়ে হয়ে যায়।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা এবং গোটা আওয়ামী লীগকে  সমূলে ধ্বংস করাই ছিলো গ্রেনেড হামলার লক্ষ্য।

 

 

 

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]