• প্রচ্ছদ » প্রথম পাতা » ড. দেলোয়ার হোসেন বললেন, মিয়ানমারের ভালো প্রস্তুতি না থাকায় রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নিয়ে অনিশ্চয়তা রয়ে গেছে


ড. দেলোয়ার হোসেন বললেন, মিয়ানমারের ভালো প্রস্তুতি না থাকায় রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নিয়ে অনিশ্চয়তা রয়ে গেছে

আমাদের নতুন সময় : 22/08/2019

আমিরুল ইসলাম : ঢাকা বিশ্বদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক ড. দেলোয়ার হোসেন বলেছেন, এখন পর্যন্ত মিয়ানমারের ভালো প্রস্তুতি না থাকার ফলে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নিয়ে অনিশ্চয়তা রয়ে গেছে। মিয়ানমার সরকার তিন হাজার রোহিঙ্গার জন্যও যদি অনুকূল পরিবেশ তৈরি করে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরু করে এবং অদূর ভবিষ্যতে সে প্রক্রিয়া  ত্বরান্বিত করে  তাহলে বড় ধরনের সাফল্য আসতে পারে।

তিনি বলেন, রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নিয়ে অনিশ্চয়তা নতুন কিছু নয়। এই অনিশ্চয়তা আগে থেকেই ছিলো। গত বছরও প্রত্যাবাসনের তারিখ নির্ধারিত করার পর প্রত্যাবাসন হয়নি। এ বছর হবে কিনা সেটা নিশ্চিত করে কোনো পক্ষই বলেনি। তবে এটা নিয়ে তৎপরতা চলছে। চারটি পক্ষ এখানে আছে, বাংলাদেশ সরকার, রোহিঙ্গা, মিয়ানমার,  আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় ও আঞ্চলিক সংস্থাগুলো রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নিয়ে কাজ করছে। সবচেয়ে বড় ভূমিকা পালন করছে চীন। চীনসহ চার-পাঁচটি যখন এ বিষয়ে কাজ করছে তখন রোহিঙ্গারা সেভাবে আগ্রহী হচ্ছে না ও আশ^স্ত হতে পারছে না যে, মিয়ানমার তাদের ফেরত নিয়ে  নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে। মিয়ানমারও এ পর্যন্ত তেমন কোনো কাজ করেনি যার ফলে তাদের উপর আস্থা রাখা যায়। মিয়ানমারের দিক থেকে অনুকূল পরিবেশ তৈরি না করা, রোহিঙ্গাদের দিক থেকে অনাগ্রহ আবার বাংলাদেশের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে তাদের জোর করে পাঠানো হবে না, যার ফলে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে অনিশ্চয়তা দেখা দিচ্ছে। অনিশ্চয়তার অনেকগুলো কারণ এখানে আছে। আবার রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরু হলেও সংখ্যা নিয়ে অনেকের কাছে প্রশ্ন রয়েছে। কারণ সংখ্যাটা অনেক ক্ষুদ্র। সে সংখ্যাটা যাবে কিনা? সেটা নিয়েও সন্দেহ রয়েছে।

 

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]