রাজধানীতে গার্মেন্টস বন্ধের প্রতিবাদে শ্রমিকদের দেড় ঘণ্টা সড়ক অবরোধে যানজট

আমাদের নতুন সময় : 22/08/2019

আসিফ কাজল : রাজধানীর শ্যামলীতে বকেয়া বেতন ও পোশাক কারখানা বন্ধের প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ করেছে আলিফ অ্যাপারেলস নামের গার্মেন্টস শ্রমিকরা। গতকাল সকাল ১০ টা থেকে রাস্তায় অবরোধ শুরু হয়। অবরোধের ফলে শ্যামলী থেকে কল্যাণপুর সড়কের সকল যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। ধানমন্ডি, মোহাম্মদপুর, শের ই বাংলা সড়কসহ বিভিন্ন এলাকায় তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। ভোগান্তিতে পড়েন গাবতলী বাসটার্মিনালগামী মানুষ। টার্মিনালে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, দক্ষিণ-পশ্চিম অঞ্চলের একাধিক দূরপাল্লার পরিবহণ দেরিতে ছেড়েছে। পরে পুলিশের সহায়তায় সড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়। তেজগাঁও অঞ্চলের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার শিবলি নোমান জানান, দেড় ঘণ্টা পর বেলা সাড়ে ১১টায় সড়কের অবরোধ তুলে নেয় পোশাক শ্রমিকরা। অবরোধের বিষয়ে বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা জানান, আমাদের না জানিয়ে সকালে গার্মেন্ট বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

সকালে গেটে তালা দেখে কোনো সমাধান না পেয়ে আমরা রাস্তায় অবস্থান নিয়েছি। গত ১১ আগস্ট ঈদের ছুটিতে যান অ্যাপারেলস গার্মেন্টস শ্রমিকরা। ঈদের ছুটি কাটিয়ে গতকাল গার্মেন্ট খোলার কথা ছিল। ‘আজ থেকে গার্মেন্ট বন্ধ’ এমন একটি  নোটিশ গেটে টাঙ্গিয়ে দেয়া হয়। রেজা হোসেন নামের পোশাক শ্রমিক বলেন, একই গার্মেন্টে পাওনা বেতনের জন্য কয়েকমাস আগে আমরা সড়কে আন্দোলন করেছিলাম। তখন মালিকপক্ষ বলেছিল ৬ মাসের মধ্যে আমাদের পাওনা পরিশোধ করে দেবে। কিন্তু এখন কিছু না বলে হঠাৎ গার্মেন্ট বন্ধ করে দিলো। জাতীয় গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি আমিরুল হক আমির বলেন, বিজিএমইএ’র বিধান অনুযায়ী একটি গার্মেন্ট বন্ধের তিন মাস আগে শ্রমিকদের অবহিত করে তাদের পাওনা পরিশোধ করতে হয়। আলিফ অ্যাপারেল গার্মেন্টসটি যেভাবে বন্ধ করেছে, তা সম্পূর্ণ অবৈধ ও অন্যায়। সম্পাদনা : আবদুল অদুদ




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]