রাশিয়াকে সঙ্গে নিয়ে পুনরায় জি-৮ এ চান ট্রাম্প ও ম্যাক্রোঁ রাশিয়াকে বের করার জন্যে ওবামাকে দোষারোপ

আমাদের নতুন সময় : 22/08/2019

লিহান লিমা: রাশিয়াকে সঙ্গে নিয়ে পুনরায় জি-৮ গঠনে সমর্থন প্রকাশ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ। বুধবার এই দুই রাষ্ট্রনেতা বলেন, ২০২০ সালের জি-৭ সম্মেলনে রাশিয়াকে আমন্ত্রণ জানানো উচিত। সিএনএন, দ্য নিউইয়র্ক টাইমস, আনাদুলু এজেন্সি। শনিবার ফ্রান্সে অনুষ্ঠেয় জি-৭ এর বার্ষিক সম্মেলনের পূর্বে বুধবার ওভাল অফিসে ট্রাম্প বলেন, ‘আমি মনে করি রাশিয়াকে এই গ্রুপে যুক্ত করা অনেকে বেশি যুক্তিযুক্ত হবে। কেউ যদি এটি নিয়ে আগ্রহ প্রকাশ করে তবে আমি অবশ্যই এর পক্ষে থাকবো।’ ট্রাম্প আরো বলেন, রাশিয়াকে সঙ্গে নিয়ে আমাদের অনেক কিছুই করার আছে। এজন্য মস্কোকে আলোচনার টেবিলে আনা প্রয়োজন। ২৪-২৫ আগস্ট ফ্রান্সে বার্ষিক সম্মেলনে মিলিত হবেন জি-৭ নেতারা।

ওভাল অফিসের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা বলেন, মঙ্গলবার ট্রাম্প ও ম্যাক্রোঁ আগামী শনিবার থেকে অনুষ্ঠিতব্য জি-৭ সম্মেলনের পরিকল্পনা নিয়ে আলোচনা করেছেন। তারা আগামী বছর রাশিয়াকে জি-৭ সম্মেলনে আমন্ত্রণ করতে একমত হয়েছেন। ধারণা করা হচ্ছে, ট্রাম্প এই বিষয়টি বাকি বিশ্বনেতাদের সঙ্গে আলোচনা করবেন।’ তিনি আরো জানান, ম্যাক্রোঁই প্রথমে রাশিয়াকে আগামী বছর আমন্ত্রণের প্রস্তাব দেন, এতে সম্মতি জানান ট্রাম্প। ২০২০ সালে জি-৭ সম্মেলন যুক্তরাষ্ট্রে অনুষ্ঠিত হবে। হোয়াইট হাউস সূত্র বলছে, এর মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার সম্পর্ককে স্বাভাবিক করতে চাইছে ফ্রান্স।

এরআগে সোমবার ম্যাক্রোঁ-পুতিন বৈঠকে ম্যাক্রোঁ বলেছেন, ক্রিমিয়াকে রাশিয়ার অর্ন্তভুক্তি নিয়ে সমাধান দেশটিকে পুনরায় জি-৭ এ ফিরিয়ে আনবে। জানা গিয়েছে, পুতিনকে ইউক্রেনের আলোচনার প্রস্তাব মেনে নেয়ার জন্য চাপ প্রয়োগের পরিকল্পনা করেছেন ম্যাক্রোঁ।

যদিও মঙ্গলবার ট্রাম্প আরো বলেছেন, পুতিন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার চাইতে অনেক বেশি স্মার্ট ও বুদ্ধিমান। সেই কারণেই নাকি তাকে জি-৭ থেকে সরিয়েছেন ওবামা। যদিও ২০১৪ সালের ওই সিদ্ধান্তে সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশই রাশিয়াকে সরানোর পক্ষে ভোট দেয়। রাশিয়া ইউক্রেনের কাছ থেকে ক্রিমিয়াকে দখল করে নেয়ার পর জি-৮ এর বেশিরভাগ দেশ যৌথ বিবৃতিতে আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে সব দেশের সার্বভৌমত্বের প্রতি সংহতি জানিয়ে রাশিয়ার সদস্যপদ বাতিল করে।

গত জুনে জি-৭ সম্মেলনে ট্রাম্প রাশিয়ার পুনঅন্তর্ভুক্তির ইচ্ছে প্রকাশ করেছিলেন। কিন্তু কানাডা ও জার্মানি ক্রিমিয়াকে দখল করে রাখা অবস্থায় রাশিয়ার অর্ন্তভুক্তির তীব্র প্রতিবাদ জানায়। জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মের্কেল বলেন, ক্রিমিয়া সংকট মোচন ব্যতিত রাশিয়াকে এই গ্রুপে আনা হবে না। সম্পাদনা : ইকবাল খান

 

 

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]