ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো বললেন, আমার বর্তমান দাম ৩০০ মিলিয়ন ইউরো

আমাদের নতুন সময় : 23/08/2019

আক্তারুজ্জামান : বিশে^র সবচেয়ে দামী ফুটবলারের নাম কি পাল্টে যাচ্ছে? ২০ কোটি ২০ লাখ ইউরোতে নেইমারকে কিনেছিলো পিএসজি। এটাই এখন পর্যন্ত সবচেয়ে খরুচে দলবদল। কিন্তু ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো বলছেন, তিনিই সবচেয়ে দামী ফুটবলার। যদিও নেইমারকে এ মৌসুমে বিক্রি করতে গেলে পুরোনো দাম পাওয়া যাবে না। পর্তুগিজ টিভি চ্যানেল টিভি আইকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে নিজের মূল্য কত জানতে চাইলে তিনি এই দাম বলেন। স্পোর্টস স্টার্স, দ্য হিন্দু

ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার নেইমার এ মৌসুমে কোথায় খেলবেন এটা এখনো চূড়ান্ত নয়। পিএসজির হয়ে চলতি মৌসুমে এখনো মাঠে নামেননি। বার্সেলোনাও পারছে না তাদের ডেরায় ভেড়াতে। আবার ফ্লোরেন্তিনো পেরেজের অনেক দিনের স্বপ্ন পূরণ করে রিয়াল মাদ্রিদেও যেতে পারেন। সবাইকে চমকে দিয়ে জুভেন্টাসে যাওয়ার ইঙ্গিতও মিলছে।

২০০৯ সালে দল বদলের বিশ্বরেকর্ড ৯৪ মিলিয়ন ইউরোতে রিয়ালে গিয়েছিলেন রোনালদো। গত মৌসুমেই সে অঙ্ককে ছাড়িয়েছেন তিনি। জুভেন্টাসের কাছে শর্তসাপেক্ষে ১১৭ মিলিয়ন ইউরোতে রিয়াল মাদ্রিদ রোনালদোকে ছেড়ে দিয়েছে। কিন্তু পরিস্থিতি যদি ভিন্ন হতো রোনালদোকে এত সহজে পেতো না জুভেন্টাস।

টিভি সাক্ষাৎকারে নিজের বাজারমূল্য ঠিক করতে সম্প্রতি হয়ে যাওয়া বেশ কিছু দলবদলের উদাহরণ টেনে রোনালদো বলেন, ‘একজন গোলরক্ষক, সেন্টার ব্যাকের দাম এখন ৭০ বা ৮০ মিলিয়ন ইউরো, যা আমি মানতেই পারি না। কিন্তু এমন এক বিশ্বেই আমরা এখন বাস করছি এমন কোনো খেলোয়াড় আছে, যার আমার চেয়ে বেশি রেকর্ড? আমার তো মনে হয় না বেশি রেকর্ড করা কেউ আছে। একজন গোলরক্ষকের দাম যদি ৭৫ মিলিয়ন ইউরো হয়, তাহলে ২৫ বছরের আমি যে কয়েক বছরে যা করেছি, তাতে আমার দাম তো তিন বা চার গুণ হওয়া উচিত।’ এই হিসাবে ৩০০ মিলিয়ন হতেই পারে তার দাম। সম্পাদনা : রাকিব




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]