আবদুল আলীম : মাটির গানের সোনার মানুষ

আমাদের নতুন সময় : 05/09/2019

অজয় দাশগুপ্ত অস্ট্রেলিয়া থেকে
সেসময় আমাদের গানের আকাশ ভরা ছিলো আলোয় আলোয়। পদ্মাপাড়ের বাঙালির শরীর মনে গানের প্রভাব অপরিসীম। আমরা তেমন এক জাতি যার জন্ম, মৃত্যু, বিবাহ এমনকি ছাদ পেটানোর সময় ও গানের দরকার পড়ে। রবীন্দ্রনাথ আর নজরুলের গান যেমন মধ্যবিত্ত বাঙালির সম্পদ তেমনি তার ভালোলাগার এক বিরাট অংশজুড়ে আছে পল্লীগীতি। এই পল্লীগীতি আসলে কি? আমরা গ্রামের মানুষের আশা, বেদনা, ভালোবাসা, বিচ্ছেদের গানকেই কি পল্লীগীতি বলবো? আমার মনে হয় না। কারণ গাড়িয়াল ভাইয়ের গানকে আমরা বলি ভাওয়াইয়া। আবার নৌপথে যে আনন্দ-বেদনা তার নাম ভাটিয়ালী। তাহলে পল্লীগীতি কোনগুলো?
বাংলাদেশ মূলত গ্রামনির্ভর দেশ। আমরা যারা শহরে বড় হয়েছি কিংবা যারা শহরে বসবাস করেন তাদের শেকড়ও কিন্তু গ্রামে। গ্রাম মানে কি কিছু বাড়িঘর আর রাত নামলে ঝিঁঝিঁ পোকার ডাক? গ্রামের যে সৌন্দর্য তার সঙ্গে মিশে থাকা জীবনের গানকেই আমরা বলি পল্লীগীতি। জসীম উদ্দীন যেমন সে জাতীয় কবিতা বা পদ্যগুলোর পথিকৃৎ তেমনি এই ঘরানার মূল গায়ক আবদুল আলীম। খুব বেশি আয়ু তিনি পাননি। জন্মেছিলেন ওপার বাংলায়। ঋদ্ধ করেছেন আমাদের। ছায়াছবির মতো ব্যস্ত কঠিন জায়গায় এ ধরনের গান গেয়ে জনপ্রিয়তা আর যশ অর্জন করা সহজ কিছু নয়। কিন্তু স্পষ্ট মনে পড়ে ছায়াছবির দর্শক ও সিনেমা হলে অধীর আগ্রহ নিয়ে বসে থাকতেন কখন সেই কণ্ঠটি গেয়ে উঠবে। আর যখন তিনি গাইতেন সত্যি বলতে কি আর সব ম্লান ও নিথর মনে হতো।
আজকাল যারা গান গায় তাদের কণ্ঠ নাকি যন্ত্র ঠিক করে দেয়। কতোটা উঠবে কতোটা নামবে তাও নাকি ঠিক করে দেয় মেশিন। তখন এমন কিছু ছিলো না। আপন কণ্ঠ আর গায়কী অবলম্বন করেই নাম-যশ কুড়াতে হতো। আমাদের আবদুল আলীম এতোটাই কুড়িয়েছিলেন যে, দেশের সবগুলো সেরা পদক তিনি অর্জন করেছিলেন অনায়াসে। হলুদিয়া পাখি সোনারই বরণ পাখিটি ছাড়িলো কে? এই গানটি শুনলে বুকের ভেতর যে হু হু বাতাস বয়ে যায় তা আর ক’টি গানে পাই আমরা? এই যে দুনিয়া কিসের লাগিয়া এই গানটি অনেকে গেয়েছেন। সবাই যার যার মতো। কিন্তু আবদুল আলীমের গানটি সবার সেরা। নবী মোর পরশমণি নবী নাম জপে যে জন সেই তো দোজাহানের ধনী। এই গানে কতোবার যে চোখে জল আসে বোঝানো মুশকিল। আবদুল আলীম আমাদের সেই জাত শিল্পী যাকে বাদ দিয়ে পল্লী বা মাটির গানের ইতিহাস রচনা অসম্ভব। আরও অসম্ভব তাকে ভুলে থাকা। মৃত্যুবার্ষিকীতে তাঁকে প্রণাম ও সালাম জানাই।
লেখক : বিশ^বিদ্যালয় পরীক্ষক ও কলামিস্ট




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]