শ্রীনগরে মহররমের মিছিলে পুলিশের লাঠিচার্জ, আহত বহু, জুমার পরেও সংঘর্ষের খবর, এখনও বিচ্ছিন্ন ভূস্বর্গ

আমাদের নতুন সময় : 07/09/2019


আসিফুজ্জামান পৃথিল : অবরুদ্ধ জম্মু-কাশ্মীরের রাজধানী শ্রীনগরে বিক্ষোভ মিছিল দূরের কথা চলতি মহররমের তাজিয়া মিছিলও অনুষ্ঠিত হতে দিচ্ছে না নিরাপত্তা বাহিনী। আশুরার প্রস্তুতির অংশ হিসেবে গত মঙ্গলবার একটি মিছিল বের করেন ধর্মপ্রাণ শিয়া মুসলমানেরা। কিন্তু তাদের এগুতে দেয়া হয়নি। এক পর্যায়ে পুলিশ বিনা উস্কানিতে লাঠিচার্জ করলে বেশ কয়েকজন আহত হন। জিও টিভি, এক্সপ্রেস ট্রিবিউন।
বিভিন্ন গণমাদ্যম ও স্থানীয় সংবাদদাতাদের পাঠানো সংবাদ বলছে, ঐতিহ্যের অংশ হিসেবে গত মঙ্গলবার তাজিয়ার প্রস্তুতি হিসেবে ঐতিহ্যবাহী এই মিছিলটি বের হয়। কিন্তু কিছুদুর যেতেই তারা পুলিশি বাঁধা ও হামলার মুখে পরেন। পুলিশ লাঠিচার্জের সঙ্গে টিয়ার গ্যাসও ছোড়ে। সব মিলিয়ে কয়জন আহত হয়েছেন তা নিশ্চিত না হওয়া গেলেও বহু আহত হয়েছেন তা নিশ্চিত করেছেন স্থানীয়রা।
এদিকে বিগত কয়েক শুক্রবারের মতো এই শুক্রবারও জুমার নামাজের পর শ্রীনগর সহ পুরো উপত্যকা জুড়েই ছোট বড় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এদিনও ঐতিহ্যবাহী জামা মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করতে পারেননি কাশ্মীরিরা। কাশ্মীরের ‘ঘোস্ট জার্নালিস্ট’ বা নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কমিউনিটি সংবাদকর্মীদের পাঠানো তথ্য বলছে তরুণদের মসজিদের দিকে যেতে দেখলেইা আটকে জিজ্ঞাসাকাদ করা হচ্ছে। এরপর জুমার নামাজ পর্যন্ত তাদের আটকে রাখা হয় চৌকিতে। শুধু শারীরিকভাবে দূর্বল বৃদ্ধ আর শিশুরাই মসজিদে গিয়ে আদায় করেছে জুমার নামাজ।
কাশ্মীরে গলমাধ্যমের নিয়ন্ত্রণ এবং ইন্টারনেট না থাকায় নতুন ধাচের এক সাংবাদিকতা গড়ে উঠেছে। ঘোস্ট জার্নালিস্ট নামের এই সাংবাদিকরা নানান উপায়ে উপত্যকার টুকরো টাকরা খবর কোড ল্যঙ্গুয়েজের মাধ্যমে পাঠিয়ে দিচ্ছেন। অনেকেই পুরাতন টেলিগ্রাফ লাইন ব্যবহার করে পাঠাচ্ছেন মোর্স কোড। কাশ্মীরের যেটুকু খবর বাইরে আসছে তার প্রায় সম্পূর্ণ কৃতিত্ব এই ঘোস্ট জার্নালিস্টদের। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]