গাজীপুরে রেস্তোরাঁয় বিস্ফোরণে আহত ১৮, তদন্ত কমিটি গঠন

আমাদের নতুন সময় : 09/09/2019


হুমায়ুন কবির : শনিবার মধ্যরাতে এ দুর্ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে ১৭ জনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
গাজীপুর ফায়ার সার্ভিসের উপসহকারী পরিচালক আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, বোর্ডবাজার এলাকায় তিনতলা ভবনে রাধুনী হোটেলে বিকট শব্দে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এ সময় হোটেলের ভবনের নীচতলা ও দ্বিতীয় তলা ধসে যায় এবং পাশের দুটি ৪ তলা ভবনের নিচতলা আংশিক ধসে পড়ে। এতে কমপক্ষে ১৮ জন আহত হয়েছেন। এসময় স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে তায়রুন্নেসা মেমোরিয়াল মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল নিয়ে যায়। সেখান থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ১৭ জনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পাঠানো হয়েছে।
ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ইনচার্জ মো. বাচ্চু মিয়া জানান, বিস্ফোরণের ঘটনায় ১৭ জনকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছে। এদের মধ্যে ৩জনকে বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের মধ্যে ১জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। অন্যদের বিভিন্ন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে।
গাছা থানার ওসি ইসমাইল হোসেন বলেন, পাশাপাশি তিন ও চার তলা দুটি ভবনের নিচতলায় ওই দুই খাবার হোটেল। দুই হোটেলের মাঝ বরাবর স্যুয়ারেজ লাইন গেছে। ওই লাইন ছিল ঢাকনা দেয়া। হতে পারে ময়লা আটকে গিয়ে সেখানে গ্যাস জমে গিয়েছিল। এর আগেও কিছুটা দূরে এই স্যুয়ারেজ লাইনেই বিস্ফোরণ হয়েছিল গত রোজায়।
গাজীপুর ফায়ার স্টেশনের সিনিয়র স্টেশন অফিসার মো. জাকারিয়া খান বলেন, বিস্ফোরণে হোটেলের দেয়াল ধসে পড়েছে, পলেস্তরা খসে পড়েছে। তবে আগুন ছড়ায়নি।
হোটেলের ম্যানেজার সুমন (২৬) নিজেও এ ঘটনায় আহত হয়েছেন। সুমন ছাড়াও আল আমীন (৩২), আরিফুল (১৮), জুবায়ের (১৬), নাজমুল (২২), জাহিদ (২৫), আলমগীর (২৭), মারুফ (১৩), মাসুদ (১৮), সুফিয়ান (২২), জাহাঙ্গীর (২০), শুকুর (১৯), রাশেদ (২২), তুহিন (২২) ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন বলে মেডিকেল ফাঁড়ি পুলিশের পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া জানিয়েছেন।
এ ঘটনায় ৫ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছেন গাজীপুরের জেলা প্রশাসক এস এম তরিকুল ইসলাম। অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. শাহিনুর ইসলামকে প্রধান করে গঠিত এই কমিটিতে ৭ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। সম্পাদনা : মুরাদ হাসান, ওমর ফারুক

হুমায়ুন কবির : শনিবার মধ্যরাতে এ দুর্ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে ১৭ জনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
গাজীপুর ফায়ার সার্ভিসের উপসহকারী পরিচালক আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, বোর্ডবাজার এলাকায় তিনতলা ভবনে রাধুনী হোটেলে বিকট শব্দে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এ সময় হোটেলের ভবনের নীচতলা ও দ্বিতীয় তলা ধসে যায় এবং পাশের দুটি ৪ তলা ভবনের নিচতলা আংশিক ধসে পড়ে। এতে কমপক্ষে ১৮ জন আহত হয়েছেন। এসময় স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে তায়রুন্নেসা মেমোরিয়াল মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল নিয়ে যায়। সেখান থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ১৭ জনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পাঠানো হয়েছে।
ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ইনচার্জ মো. বাচ্চু মিয়া জানান, বিস্ফোরণের ঘটনায় ১৭ জনকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছে। এদের মধ্যে ৩জনকে বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের মধ্যে ১জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। অন্যদের বিভিন্ন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে।
গাছা থানার ওসি ইসমাইল হোসেন বলেন, পাশাপাশি তিন ও চার তলা দুটি ভবনের নিচতলায় ওই দুই খাবার হোটেল। দুই হোটেলের মাঝ বরাবর স্যুয়ারেজ লাইন গেছে। ওই লাইন ছিল ঢাকনা দেয়া। হতে পারে ময়লা আটকে গিয়ে সেখানে গ্যাস জমে গিয়েছিল। এর আগেও কিছুটা দূরে এই স্যুয়ারেজ লাইনেই বিস্ফোরণ হয়েছিল গত রোজায়।
গাজীপুর ফায়ার স্টেশনের সিনিয়র স্টেশন অফিসার মো. জাকারিয়া খান বলেন, বিস্ফোরণে হোটেলের দেয়াল ধসে পড়েছে, পলেস্তরা খসে পড়েছে। তবে আগুন ছড়ায়নি।
হোটেলের ম্যানেজার সুমন (২৬) নিজেও এ ঘটনায় আহত হয়েছেন। সুমন ছাড়াও আল আমীন (৩২), আরিফুল (১৮), জুবায়ের (১৬), নাজমুল (২২), জাহিদ (২৫), আলমগীর (২৭), মারুফ (১৩), মাসুদ (১৮), সুফিয়ান (২২), জাহাঙ্গীর (২০), শুকুর (১৯), রাশেদ (২২), তুহিন (২২) ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন বলে মেডিকেল ফাঁড়ি পুলিশের পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া জানিয়েছেন।
এ ঘটনায় ৫ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছেন গাজীপুরের জেলা প্রশাসক এস এম তরিকুল ইসলাম। অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. শাহিনুর ইসলামকে প্রধান করে গঠিত এই কমিটিতে ৭ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। সম্পাদনা : মুরাদ হাসান, ওমর ফারুক




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]