• প্রচ্ছদ » প্রথম পাতা » বিতর্কিত কর্মকান্ডে ছাত্রলীগের নেতৃত্ব প্রশ্নবিদ্ধ, দেশজুড়ে সমালোচনা


বিতর্কিত কর্মকান্ডে ছাত্রলীগের নেতৃত্ব প্রশ্নবিদ্ধ, দেশজুড়ে সমালোচনা

আমাদের নতুন সময় : 09/09/2019

আসিফ কাজল : বর্তমান কমিটি দায়িত্ব নেয়ার পর থেকেই একের পর এক কর্মকা-ে বিতর্কিত হয়েছে ছাত্রলীগ। তরুণ নেতৃত্বকে যে আশা নিয়ে দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল তারা তার প্রতিফলন ঘটাতে পারেনি। প্রায় এক বছরের মাথায় গত ১৩ মে পূর্ণাঙ্গ কমিটি দেয়। কিন্তু এ কমিটি গঠন নিয়েই শুরু হয় তুমুল বিতর্ক। বিএনপি, জামায়াত-শিবির এবং বিবাহিতদেরও ঠাঁই দেয়া হয় তাতে। ছাত্রলীগের ত্যাগী নেতারা কমিটিতে স্থান না পেয়ে অবস্থান কর্মসূচি ও আমরণ অনশনে বসেন।
এছাড়া আওয়ামী লীগ জ্যেষ্ঠ নেতাদেরকে যথাযথ মূল্যায়ন না করা, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে কমিটি নিয়ে অর্থ লেনদেন, ইডেন কলেজ ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে কমিটি দিতে ব্যর্থতাও রয়েছে তাদের। এমন সব কর্মকা-ে প্রশ্নের মুখে পড়েছেন ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী।
গত শনিবার আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার ও মনোনয়ন বোর্ডের সভায় ছাত্রলীগের ইস্যুতে বিভিন্ন অভিযোগের তথ্য উঠে আসে। এসময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দুই ছাত্রলীগ নেতার উপর অসন্তোষ ও ক্ষোভ প্রকাশ করেন। এরপর থেকেই ছাত্রলীগের কমিটি ভেঙ্গে যাওয়ার গুঞ্জন উঠেছে।
গতকাল রোববার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসসহ দেশজুড়ে ছাত্রলীগের বিভিন্ন মহলে শনিবারের ঘটনা নিয়ে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা হয়। নেতাকর্মীদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে ছাত্রলীগ কমিটি ভেঙে দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী। রোববার সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, এখনো কোনো সাংগঠনিক সিদ্ধান্ত আসেনি। যতক্ষণ পর্যন্ত সিদ্ধান্ত ও বাস্তবায়ন না হবে, ততক্ষণ আমি এ বিষয়ে কিছুই বলতে পারবো না।
ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতাকর্মীরা অভিযোগ করেন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মেলনে ছাত্রলীগ দুই নেতার জন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালের তিন ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হয়। এছাড়া সময় মতো অনুষ্ঠানে না পৌঁছায় শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এবং সিনিয়র নেতা তোফায়েল আহমেদকেও বসে থাকতে হয়। শোভন-রাব্বানী কাছের ব্যক্তিদের পদায়নের কারণে অযোগ্য ব্যক্তিরা সামনে এসেছে। কর্মীবান্ধব পরিবেশ নষ্ট হয়েছে।
ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী বলেন, প্রধানমন্ত্রী আমাদের অবিভাবক। তিনি ধমক দিয়েছেন। তবে আওয়ামী লীগের অতি উৎসাহী কিছু মানুষ আমাদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে।
ছাত্রলীগের একটি সূত্র জানায়, বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ের আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে তাদের অফিস কক্ষে মদের বোতল পাওয়ার ঘটনাও ঘটে। এরপর থেকেই তাদের কক্ষটি তালাবদ্ধ রয়েছে। এছাড়া তারা দেরিতে ঘুম থেকে ওঠেনÑ সম্প্রতি গোয়েন্দাদের এমন তথ্য রয়েছে।
বর্তমান কমিটির সহ-সভাপতি সোহান খান বলেন, এক বছর পর পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। যাদেরকে পদ দেওয়া হয়েছে ৩ মাস পেরিয়ে গেলেও এখন পর্যন্ত কাউকেই দায়িত্ব দেওয়া হয়নি।
এদিকে, ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির গতকাল রংপুর যাওয়ার কথা ছিল। এ ঘটনার প্রেক্ষিতে সপ্তাহব্যাপী এ সফর স্থগিত করেন নেতারা। ছাত্রলীগের সাবেক সম্পাদক রানা হামিদ বলেন, তারা ইতোমধ্যে বিমানের টিকিট বাতিল করেছেন। সম্পাদনা: রমাপ্রসাদ বাবু




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]