• প্রচ্ছদ » » শিক্ষক নিয়োগ মানে মানুষ গড়ার কারিগর নিয়োগ, এখানে রাজনীতি কিংবা আঞ্চলিকতা ঢুকানোর অর্থই হলো আপনি দেশের শত্রু


শিক্ষক নিয়োগ মানে মানুষ গড়ার কারিগর নিয়োগ, এখানে রাজনীতি কিংবা আঞ্চলিকতা ঢুকানোর অর্থই হলো আপনি দেশের শত্রু

আমাদের নতুন সময় : 09/09/2019


কামরুল হাসান মামুন : সকাল থেকে বিশ্বের কয়েকটি নামিদামি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগের শর্তাবলী দেখছিলাম আর আশ্চর্য হচ্ছিলাম। আমাদের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি আর নিয়োগের শর্তাবলী তাদের থেকে কতো ভিন্ন। বিশ্বের বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এতো ভিন্ন হওয়া সত্ত্বেও আমরা সেগুলোকে অভিন্ন নীতিমালা বলছি। ইউনিভার্সিটি অফ ক্যালিফোর্নিয়া লস এঞ্জেলেস সংক্ষেপে যাকে টঈখঅ বলে সেই বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞানের বিজ্ঞাপনে কি কি শর্তাবলী আছে একটু আলোকপাত করি। প্রথম কথা হলো এই বিজ্ঞাপনের কোথাও প্রার্থীর জাতীয়তা, ধর্ম ইত্যাদি পরিচয় জানতে চায়নি কারণ এটি যে বিশ্ববিদ্যালয়। দ্বিতীয়ত এই বিজ্ঞাপনটি দেয়া হয়েছে মার্কিন ফিজিক্যাল সোসাইটি কর্তৃক প্রকাশিত পদার্থবিজ্ঞানের একটি নামিদামি সাময়িকী ‘ফিজিক্স টুডে’তে। এটি সারাবিশ্বে বহুল প্রচারিত একটি সাময়িকী কারণ এটি যে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি। তৃতীয় আরেকটি পার্থক্য হলো এই বিজ্ঞাপনজুড়ে কোথাও এসএসসি, এইচএসসি, বিএস, এমএস পরীক্ষার ফলাফল জানতে চায়নি। আর জিপিএর থ্রেশোল্ড উল্লেখের তো প্রশ্নই নেই। কারণ এটি একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি। তাই বিশ্বের সব বিশ্ববিদ্যালয়ের জিপিএ নম্বরের মান এক নয়। তাই এসব নম্বরের উল্লেখ অবান্তর। চতুর্থত, এই বিজ্ঞাপনের কোথাও বলেনি ন্যূনতম এতো বছরের শিক্ষকতার অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। তবে স্পষ্ট করে উল্লেখ আছে পিএইচডি অথবা সমমানের ডিগ্রি অবশ্যই থাকতে হবে। পুরো বিজ্ঞাপনজুড়ে এটিই একমাত্র ন্যূনতম যোগ্যতা হিসেবে উল্লেখ আছে। আর উল্লেখ আছে বিভাগ একজন ড়ঁঃংঃধহফরহম বা অসাধারণ পদার্থবিদকে খুঁজছে। এই বাক্যটি খুব বিষষ-ফবভরহবফ না তারপরও তারা সচেতনভাবে এটি উল্লেখ করেছে। তবে প্রার্থী যদি টঈখঅকে চিনে বিশেষ করে ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগকে চিনে তাহলে যোগ্য একজন প্রার্থীর একটি পারসেপশন থাকবে ড়ঁঃংঃধহফরহম বলতে তারা কি বুঝিয়েছে। আরেকটি বিষয় উল্লেখ্য, এই দরখাস্তগুলো পাঠাতে হবে সংশ্লিষ্ট বিভাগে অর্থাৎ পদার্থবিজ্ঞানে নিয়োগের জন্য ওই বিভাগেই দরখাস্ত জমা দিতে হবে। আর নিয়োগের জন্য সমস্ত বাছাই প্রক্রিয়াও সম্পন্ন করবে সংশ্লিষ্ট বিভাগ। যেখানে ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির কোনো ভূমিকা নেই। দরখাস্তের সঙ্গে প্রার্থীকে কি কি জমা দিতে বলেছে সেটিও বেশ ইন্টারেস্টিং। জমা দিতে বলেছে তিন বা ততোধিক রিকমেন্ডেশন লেটার, একটি একাডেমিক সিভি, প্রার্থীর গবেষণায় ধপপড়সঢ়ষরংযসবহঃ উল্লেখ করে একটি গবেষণা পরিকল্পনা, ভবিষ্যৎ শিক্ষকতার একটি স্টেটমেন্ট ইত্যাদি। কোথাও রেজাল্ট বা নম্বরের উল্লেখ নেই তারপরও প্রার্থীরা জানে তারা কি চায়। উল্লেখ নেই বলে হাজার হাজার দরখাস্ত পড়বে না। এই বিশ্ববিদ্যালয়টি ইউনিভার্সিটি অফ ক্যালিফোর্নিয়া লস এঞ্জেলেস না হয়ে হার্ভার্ড বা স্ট্যানফোর্ড হলেও প্রায় একই বিজ্ঞাপন হতো। তারপরও কিন্তু যারা ওখানে দরখাস্ত করবে এখানে করতে সাহস পাবে না। সুতরাং অভিন্ন বলতে কি বোঝায় সেটি সম্বন্ধে নিশ্চয়ই একটি ধারণা হয়েছে। একটি সাধারণ বা অভিন্ন বিজ্ঞাপন হতে হলে এতো ফাইন ডিটেইলস উল্লেখ থাকে না। ইংল্যান্ডে লিখিত কোনো সংবিধান বা শাসন ব্যবস্থা নেই, কিন্তু আমাদের আছে। তাই বলে কি আমাদের শাসন ব্যবস্থা তাদের চেয়ে বেটার? ঠিক তেমনি ওদের সব নিয়ম লিখিত নেই, কিন্তু আমাদের একদম ফাইন ডিটেইলস আছে, তাই বলে কি আমরা বেটার শিক্ষক নিয়োগ দিচ্ছি? এখানেই সভ্য আর অসভ্যের মাঝে তফাৎ।
কাজেই আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে আঞ্চলিক ভাবনা থেকে আস্তে আস্তে মুক্ত হতে হবে। আস্তে আস্তে আমাদের ওই উচ্চতায় পৌঁছতে হলে নিয়মকানুনগুলোও ওদের মতো করতে হবে। বুঝতে হবে শিক্ষক নিয়োগ মানে মানুষ গড়ার কারিগর নিয়োগ। এটিকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিতে হবে। এখানে রাজনীতি কিংবা আঞ্চলিকতা ঢুকানো অর্থই হলো আপনি দেশের শত্রু। আপনি কেবল ব্যক্তি স্বার্থের কথা ভেবে দেশের বৃহত্তর স্বার্থকে বিসর্জন দিচ্ছেন। এই অন্যায়ের কোনো মাফ নেই। অথচ আমরা এই অন্যায়গুলোই বছরের পর বছর করে যাচ্ছি। যারা বুঝে তারা নীরবে সয়ে যাচ্ছে। আর নয়। এসব নিয়োগ বোর্ডকে শক্তিশালী করতে হবে। প্রয়োজনে নিয়োগ বোর্ডে বিশ্বমানের বিদেশি, কিন্তু বাংলাদেশি অরিজিন এমন শিক্ষাবিদকে এক্সপার্ট হিসেবে রাখতে হবে। এই মুহূর্তে হায়দার হোসেনের একটি গানের কথা মনে পড়ছে ‘কি দেখার কথা কি দেখছি কি শোনার কথা কি শুনছি কি ভাবার কথা কি ভাবছি কি বলার কথা কি বলছি’। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]