• প্রচ্ছদ » আমাদের খেলা » সেরেনাকে হারিয়ে ইউএস ওপেনের শিরোপা জিতে কানাডিয়ান তরুণী বিয়াঙ্কার ইতিহাস


সেরেনাকে হারিয়ে ইউএস ওপেনের শিরোপা জিতে কানাডিয়ান তরুণী বিয়াঙ্কার ইতিহাস

আমাদের নতুন সময় : 09/09/2019


আক্তারুজ্জামান : কতভাবেই না রূপকথার গল্পগুলো সত্যি হয়ে যায়। বিয়াঙ্কার রূপকথার গল্পটা ঠিক এমন। আর সেই রূপকথাকে তিনি পরিপূর্ণতা দিয়েছেন আর কাউকে নয়, সেই সেরেনা উইলিয়ামসকে হারিয়ে। যে সেরেনার আধিপত্য দেখে তারও সাধ হয়েছিলো আমেরিকা জয় করার, আর্থার অ্যাশের রানি হওয়ার! সেরেনাকে ৬-৩, ৭-৫ সেটে হারিয়ে রাতে ইউএস ওপেনের নতুন রানি হয়েছেন বিয়াঙ্কা আন্দ্রিস্কু। শৈশবের নায়িকা সেরেনাকে হারালেন তার উঠোনেই। আর ইউএস ওপেনের চেকবুকও পেয়ে স্বপ্নপূরণ করলেন।
২০১২, ২০১৩ ও ২০১৪ সালে টানা তিনবার ইউএস ওপেনের শিরোপা জিতেছিলেন সেরেনা। এটা দেখেই সেরেনার পাশের দেশ কানাডার ১৪ বছর বয়সী এক টেনিসপ্রেমী কিশোরীর বড্ড সাধ হলো ইউএস ওপেনের শিরোপাটা ছুঁয়ে দেখতে। সেই সঙ্গে ইউএস ওপেনের চেকবইটাও একটু নেড়েচেড়ে দেখতে। কিন্তু আসল চেক তো পাওয়া সম্ভব না, তাই ইউএস ওপেনের একটা নকল চেক বানালেন নিজের জন্য। তাতে নিজের নাম বসালেন। বসাতে বসাতে ঘুণাক্ষরেও কি ভেবেছিলেন, পাঁচ বছরের মধ্যে নকল নয়, আসল চেকই জিততে পারবেন?
কাল শিরোপা লড়াইয়ে নামার আগে ২৩টা গ্র্যান্ডস্লাম জিতেছিলেন সেরেনা। কানাডিয়ান তরুণীর কাছে হেরে রেকর্ড ২৪তম গ্র্যান্ডস্লাম জেতা হলো না তার। ইতিহাসে এক মার্গারেট কোর্ট ছাড়া আর কোনো টেনিস তারকার এত গ্র্যান্ডস্লাম শিরোপা নেই। কোর্টকে টপকাতে আরেকটু অপেক্ষা করতে হচ্ছে সেরেনাকে।
বছরের শুরুতে র‌্যাঙ্কিংয়ে ১৪৩ নম্বরে ছিলেন বিয়াঙ্কা আন্দ্রেস্কু। এরপর এ নয় মাসের শেষে তিনি যা করে দেখালেন সেটা নিজেই বিশ^াস করতে পারছেন না। আসলে পারবেন কিভাবে? শৈশবে যাকে টানা তিনবার ইউএস ওপেনের শিরোপা উঁচিয়ে ধরতে দেখেছিলেন, সেই সেরেনা উইলিয়ামসকে হারিয়েই নিজের ক্যারিয়ারের প্রথম গ্র্যান্ডস্লাম জিতলেন গতরাতে। আর তাতেই গড়েছেন ইতিহাস। কানাডার হয়ে নারী বা পুরুষদের মধ্যে প্রথম ব্যক্তি হিসেবে তিনিই ইউএস ওপেন শিরোপা জিতলেন। সম্পাদনা : শিউলী আক্তার




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]