কাশ্মীরে তথ্য-প্রযুক্তি সেক্টরে চাকরি হারালেন ১,৫০০

আমাদের নতুন সময় : 10/09/2019

ইমরুল শাহেদ : অধিকৃত কাশ্মীরে ইতোমধ্যেই হাজার হাজার তরুণ বেকার হয়ে পড়েছেন। কেবল তথ্য-প্রযুক্তি (আইটি) ক্ষেত্রেই চাকরিচ্যুত হয়েছেন এক হাজার পাঁচশ’। ইন্টারনেট যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ থাকার কারণেই এমনটা হয়েছে। কাশ্মীর মূলত গতকাল সোমবার পর্যন্ত ৩৬ দিন যোগাযোগের অভাবে বিশ্ব থেকে বিচ্ছিন্ন রয়েছে। এতে বড় ধরনের ক্ষতির মুখে পড়েছে শিল্প খাত। কর্মকর্তারা বলছেন, বিদেশি কোম্পানিগুলো উপত্যকা ছেড়ে অন্য দিকে ধাবিত হচ্ছে। শ্রীনগরের একটি স্বনামধন্য আইটি কোম্পানি স্টাফদের দেওয়া নোটিশে বলেছে, ‘আপডেটের জন্য অফিসে এসে নিজেদেরকে বিপদের দিকে ঠেলে দিবেন না। আমরা নিজেরাই কিছু কর্মীকে দিল্লি সরিয়ে নেওয়ার জন্য আপনাদের সঙ্গে যোগাযোগ করব।’ কেএমএসনিউজ, ডেক্কান হেরাল্ড।
শ্রীনগরের রেনগ্রেথ এলাকাতেই গুরুত্বপূর্ণ আইটি কোম্পানিগুলোর কার্যালয়। সেখান থেকেই যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, মধ্যপ্রাচ্য এবং দক্ষিণ আফ্রিকায় তথ্য-প্রযুক্তি পরিষেবা দেওয়া হয়। সেখানেই এক হাজার পাঁচশ’ কর্মী চাকরি হারিয়েছে। এ্যাইগিজ, লালাফে, এসটিসি এবং আইকোয়াশার মতো কোম্পানিগুলো বড় ধরনের লোকসান এড়ানোর জন্য কিছু কর্মীকে দিল্লিতে পাঠিয়েছে। এসব কোম্পানিগুলো বিদেশি কোম্পানিগুলোর সঙ্গে কোটি কোটি রুপি ব্যবসা করে।
ডেক্কান হেরাল্ডের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কাশ্মীর উপত্যকায় এতো দীর্ঘ সময় থেকে ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন থাকার ঘটনা এটাই প্রথম। প্রতিবেদনে বলা হয়, গত ৫ অগাস্ট থেকে রোববার পর্যন্ত ইন্টারনেট বন্ধ রয়েছে ৮৪০ ঘন্টা। এর আগে ২০১৬ সালে গ্রীস্মকালীন বিক্ষোভের সময় ইন্টারনেট বন্ধ ছিল ২৪০ ঘন্টা। কাশ্মীরে হঠাৎ হঠাৎ ইন্টারনেট বন্ধ থাকা নতুন কোনো ঘটনা নয়। এমনটা অতীতে কয়েক হাজার বারই ঘটেছে। কিন্তু এবার শুধু মোবাইল ইন্টারনেট সার্ভিস নয়, ব্রডব্যান্ড, লিজ লাইন এবং ভি-স্যাটও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।
ভারত সরকারের এসব ব্যবস্থার সমালোচনা করে কর্নাটকের একটি সেমিনারে কমিউনিস্ট পার্টি অব ইন্ডিয়ার নেতা কবিতা কৃঞ্চনান বলেছেন, ভারত সরকার জম্মু ও কাশ্মীরকে কারাগারে পরিণত করেছে এবং সরকার সেখানে জনগণের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছে। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]