• প্রচ্ছদ » শেষ পাতা » বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠায় সমন্বয় জরুরি বললেন ডেপুটি গভর্নর


বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠায় সমন্বয় জরুরি বললেন ডেপুটি গভর্নর

আমাদের নতুন সময় : 10/09/2019

মেরাজ মেভিজ : সরকারের বিশেষ পরিকল্পনায় চলছে সরকারি ও বেসরকারি উদ্যোগে দেশব্যাপী ১০০ বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার কাজ। তবে এ কাজে ইজেড এবং ইপিজেডের পুরোপুরি অর্থনৈতিক সুবিধা পেতে সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলোর মধ্যে সমন্বয় প্রয়োজন বলে মনে করেন বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর এবং বিআইবিএম নির্বাহী কমিটির চেয়ারম্যান এস এম মনিরুজ্জামান।
শুধু তাই নয়, এর সর্বোচ্চ ব্যবহার নিশ্চিত করতে অন্যান্য অবকাঠামো ও প্রণোদনার পাশাপাশি সহায়ক ব্যাংক ও ঋণ সেবা দেয়াও জরুরিÑএমন তথ্যই উঠে এসেছে বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ব্যাংক ম্যানেজমেন্টের (বিআইবিএম) ‘বিজনেস ফ্যাসিলিটেশন ইন ইপিজেড/ইজেড বাই ব্যাংকস বিষয়ক’ শীর্ষক গবেষণা প্রতিবেদনে।
গতকাল বিআইবিএম এর অডিটোরিয়ামে আয়োজিত কর্মশালার উদ্বোধনে ডেপুটি গভর্নর বলেন, ২০৪১ সালের মধ্যে দেশকে উন্নত দেশে রূপান্তরের লক্ষ্যে ১০০টি সরকারি এবং বেসরকারি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এসব বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার মূল উদ্দেশ্য হলো দ্রুত অর্থনৈতিক উন্নয়ন এবং পণ্যের বৈচিত্র্য আনয়ন, কর্মসংস্থান সৃষ্টি এবং রপ্তানি বাড়ানো।
কর্মশালায় মূল গবেষণা প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিআইবিএম-এর অধ্যাপক এবং পরিচালক (প্রশিক্ষণ) ড. শাহ মো. আহসান হাবীব। সেখানেই উঠে আসে বিভিন্ন তথ্য। এদিকে সমাপনী বক্তব্যে বিআইবিএমের চেয়ার প্রফেসর এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের সাবেক অধ্যাপক ড. বরকত-এ-খোদা বলেন, এখন বাংলাদেশের মূল লক্ষ্য দ্রুত অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জন এবং রপ্তানি ভিত্তিক অর্থনীতি গড়ে তোলা। ইপিজেড এবং ইজেড এ লক্ষ্য অর্জনে সহায়ক ভূমিকা রাখবে।
অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন পূবালী ব্যাংকের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং বিআইবিএমের সুপারনিউমারারি অধ্যাপক হেলাল আহমদ চৌধুরী। এ প্রসঙ্গে তার ভাষ্য, ব্যাংকারদের বৈশ্বিক পরিস্থিতি সম্পর্কে স্পষ্ট ধারণা থাকতে হবে। ব্যাংকারদের এলসি এবং আনুষাঙ্গিক বিষয় সম্পর্কে সম্যক ধারণা না থাকলে লক্ষ্য অর্জন সম্ভব হবে না। সম্পাদনা : রেজাউল আহসান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]