মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৬০, বৃষ্টি হওয়ায় রোগী বাড়ার আশঙ্কা

আমাদের নতুন সময় : 10/09/2019

তাসকিনা ইয়াসমিন : গত ২৪ ঘণ্টায় বৃষ্টি হওয়ায় ডেঙ্গুরোগী বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. মো. আবুল কালাম আজাদ। তিনি বলেন, আমরা এটা সবসময় দেখেছি বৃষ্টি হলেই ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা বেড়ে যায়। তবে, আমরা আশাবাদী হতে চাই যে, এবার আগস্ট মাসে এত বেশি মশা নিধনে সচেতনতামূলক কার্যক্রম নেয়া হয়েছে এরপর আর সেপ্টেম্বরে নতুন করে ডেঙ্গু মশার জন্ম হবে না।
আইইডিসিআরের প্রিন্সিপ্যাল সায়েন্টিফিক অফিসার ড. এ. এস. এম আলমগীর বলেন, বৃষ্টি হলে ডেঙ্গু বাড়ে এটার প্রধান কারণ বৃষ্টির পানির স্পর্শ পেলে এডিস মশার ডিম থেকে লার্ভা হয়। তাই সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে যেন, বাড়িতে টানা তিনদিনের বেশি কোথাও পানি জমে না থাকে।
সারাদেশে এ পর্যন্ত মোট ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৭৭২৩০ জন, এদের মধ্যে হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৭৩৯৪২ জন। গত ২৪ ঘন্টায় হাসপাতালে ডেঙ্গুজ¦রে আক্রান্ত রোগী ভর্তি হয়েছেন ৭১৬ জন।
গতকাল রবিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ্ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের সহকারী পরিচালক ডা.আয়শা আক্তার এতথ্য জানান।
তিনি জানান, বর্তমানে দেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ডেঙ্গুজ¦রে আক্রান্ত সর্বমোট ভর্তি রোগীর ৩০৯১ জন। ঢাকার ৪১টি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে বর্তমানে সর্বমোট ভর্তি রোগী ১৫২২ জন। অন্যান্য বিভাগে বর্তমানে সর্বমোট ভর্তি রোগী ১৫৬৯ জন। গত ২৪ ঘন্টায় (০৮ সেপ্টেম্বর সকাল ৮টা থেকে ০৯ সেপ্টেম্বর সকাল ৮টা পর্যন্ত) ডেঙ্গুজ¦রে আক্রান্ত হয়ে নতুন রোগী ভর্তি হয়েছে ৭১৬ জন। এরমধ্যে ঢাকায় নতুন ভর্তি রোগী ৩০০ জন। ঢাকার বাইরে নতুন ভর্তি রোগী ৪১৬ জন।
তিনি জানান, রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটে (আইইডিসিআর) ডেঙ্গুসন্দেহে ১৯৭টি মৃত্যুর তথ্য প্রেরিত হয়েছে। এরমধ্যে আইইডিসিআর ১০১টি মৃত্যু পর্যালোচনা সমাপ্ত করে ৬০টি মৃত্যু ডেঙ্গুজনিত বলে নিশ্চিত করেছে। সম্পাদনা : রেজাউল আহসান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]