• প্রচ্ছদ » সাবলিড » আলভীর ঘটনাটি তদন্ত করে দেখতে হবে এটা নিছক একটি দুর্ঘটনা নাকি অন্য কিছু, বললেন তথ্যমন্ত্রী


আলভীর ঘটনাটি তদন্ত করে দেখতে হবে এটা নিছক একটি দুর্ঘটনা নাকি অন্য কিছু, বললেন তথ্যমন্ত্রী

আমাদের নতুন সময় : 12/09/2019


বাশার নূরু : গতকাল বুধবার রাজধানীর শ্যামলীতে বেসরকারি হাসপাতাল ট্রমা সেন্টারে সড়ক দুর্ঘটনায় মারাত্মকভাবে আহত ইয়ামিন আলভীকে দেখতে গিয়ে ড. হাছান মাহমুদ একথা বলেন। ইয়ামিন আলভী সম্প্রতি সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত দেশের বরেণ্য সুরকার পারভেজ রবের সন্তান। মন্ত্রী বলেন, আমি সড়ক দুর্ঘটনা রোধে সচেতনতা গড়ে তুলতে চালক, যানবাহন মালিক, পরিবহন শ্রমিক এবং দেশবাসীসহ সকলের প্রতি আহ্বান জানাই। অনেক চালকের বেপরোয়া গাড়ি চালানোর কারণে সড়ক দুর্ঘটনা ঘটে থাকে। তাছাড়া, সড়ক ব্যবহারকারী বা পথচারী ও চালকদের অসচেতনতার কারণেও সাধারণত দুর্ঘটনা হয়।
ড. হাছান মাহমুদ বলেন, পরিবহন শ্রমিকদের অদক্ষতা, ট্র্রাফিক আইন লংঘনের প্রবনতা, কারিগরি ত্রুটি, অতিরিক্ত গতি, ওভার টেকিং ও অতিরিক্ত মালামাল পরিবহন সড়ক দুর্ঘটনার অন্যতম কারণ। তিনি বলেন, অনেক চালকের কোনো ড্রাইভিং লাইসেন্স নেই। তারা ভূয়া লাইসেন্স দিয়ে পরিবহন চালক হিসাবে কাজ করে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে তারাই সড়ক দুর্ঘটনার জন্য দায়ী । তিনি আহত আলভীর দুর্ঘটনাকে সন্দেহ প্রকাশ করে বলেন, এটা নিছকই একটা সড়ক দুর্ঘটনা নয়।
তিনি বলেন, পারভেজ রব কয়েকদিন আগে সড়ক দুর্ঘটনায় মমার্ন্তিকভাবে নিহত হন। অপরদিকে কয়েক দিন পরেই তার সন্তান আলভী সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর জখম হয় এবং একই দুর্ঘটনায় আলভীর এক বন্ধু নিহত হয়। ঘটনাটি তদন্ত করে দেখতে হবে এটা নিছক একটি দুর্ঘটনা নাকি অন্য কিছু।
তিনি বলেন, সরকার সড়ক দুর্ঘটনা রোধে একটি টাস্কর্ফোস গঠন করেছিল। এই ট্রাস্কফোর্স দুর্ঘটনা প্রতিরোধে ১১০ সুপারিশ করেছে। সরকার সুপারিশ বাস্তবায়নে কাজ করছে। এটা বাস্তবায়িত হলে দুর্ঘটনা হ্রাস পাবে। বেপরোয়া গতিতে যে সব চালক গাড়ি চালায় তাদেরকে আইনের আওতায় আনার জন্য অভিমত ব্যক্ত করেন তিনি। মন্ত্রী হাসপাতালে আলভীর পরিবারের সদস্য এবং সংশ্লিষ্ট ডাক্তারের সঙ্গে আলভীর চিকিৎসার ব্যাপারে খোঁজ খবর নেন। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]