মহাসড়কে টোল আদায়ে অনড় সরকার

আমাদের নতুন সময় : 12/09/2019

সমীরণ রায় : সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, জাতীয় মহাসড়কগুলোতে টোল আরোপ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজেই এই ঘোষণা দিয়েছেন।তাই এখান থেকে সরে আসার কোনো কারণ দেখছি না।
গতকাল বুধবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি আরও বলেন, চার মহাসড়কে টোল আরোপের বিষয়ে প্রক্রিয়া চলছে। পৃথিবীর সব দেশেই সড়কে টোল আছে। চার লেন, ছয় লেন, আট লেনের সড়ক হবে। পৃথিবীর সব দেশেই সড়ক যারা ব্যবহার করে তাদের কাছ থেকে টোল নেুয়া হয়। বাংলাদেশ কেন ব্যতিক্রম থাকবে? বাংলাদেশেও এ নিয়ম মেনে চলতে হবে। সড়ক মেরামত ও সংস্কার করতে হয়। ওভারলোডের জন্য বিভিন্নভাবে সড়ক ক্ষতিগ্রস্ত হয় । টোল ফি কত হবে সেটা নিয়ে প্রক্রিয়া চলছে। মন্ত্রণালয় ও বিআরটি এ বিষয়ে কাজ করছে। একটা রিজেনেবল প্রাইজ দিতে চেষ্টা করা হচ্ছে। এ বিষয়ে মন্ত্রণালয় কাজ করছে। আমরা যখন এ বিষয়ে কিছু করবো তখন আপনারা জানবেন। এটা কোনো গোপনীয় বিষয় না। যখন আমরা টোল আরোপ করবো তখন আপনাদের জানানো হবে। এ বিষয়ে আমরা স্টেকহোল্ডারদের সঙ্গেও আলোচনা করবো।
সেতুমন্ত্রী বলেন, এখানে সাধারণ মানুষের জন্য রাস্তা, তাই যারা রাস্তা ব্যবহার করবেন তারাই টোল দেবেন। যাত্রীবাহী ও পণ্যবাহী গাড়িসহ সব গাড়িতেই টোল দিতে হবে। প্রাইভেটকার, বাস, ট্রাক বলেন-একেকটার একেকরকমের টোল হবে। ভারী পণ্যবাহী হলে যে টোল হবে অন্যদের হালকা হলে সে রকম হবে না। তবে মহাসড়কের সব সড়কেইতো আর টোল বসানো হবে না। আমরা প্রধানত মহাসড়কের মধ্যে যেগুলো চার, ছয় এবং আট লেন সড়ক আছে বা নতুন করে হবে, এসব সড়কগুলোতেই টোল আরোপের চিন্তা-ভাবনা করছি। জেলা শহরগুলোর বড় সড়কগুলো টোলের আওতায় আনছি না। ঢাকা-মাওয়া, ঢাকা-চিটাগাং, এক্সপ্রেসওয়ে, এলেঙ্গা এসব সড়কে টোল আরোপ হবে। এলেঙ্গা থেকে রংপুর পর্যন্ত ফোর লেন হবে, মূলত সেগুলো টোলের আওতায় আনা হবে। এতে কোনো প্রভাব পড়বে না। আগে যেখানে চিটাগাং যেতে আট ঘণ্টা সময় লাগতো, এখন সাড়ে ৩ ঘণ্টায় চিটাগাং যাচ্ছেন। কত ঘণ্টা সাশ্রয় হচ্ছে কত ঘণ্টা বেশি কাজ করছেন। এ কারণে ক্ষয়ক্ষতির কোনো আশঙ্কা নেই।
পদ্মাসেতুর টোল প্রসঙ্গে সেতুমন্ত্রী বলেন, পদ্মাসেতুর টোল নিয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। সেতুর নির্মাণ প্রক্রিয়া এগিয়ে চলছে। আগামী বছরের ডিসেম্বর নাগাদ আমাদের ভৌত অবকাঠামোর কাজ শেষ হবে। এরপর হয়তো তিন-চার মাসের মধ্যে পদ্মাসেতু যানচলাচলের জন্য খুলে দেয়া হবে। সম্পাদনা : সমর চক্রবর্তী




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]