চার বছরে ব্যাংকের উদ্বৃত্ত তারল্য অর্ধেকে নেমেছে

আমাদের নতুন সময় : 14/09/2019

রমজান আলী : ব্যাংক খাতে তারল্যের ওপর এখন ভয়াবহ চাপ পড়েছে। এজন্য এক ব্যাংক অন্য ব্যাংক থেকে বা কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে প্রায়ই টাকা ধার করছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য বলছে, গত চার বছরে ব্যাংক খাতে এ সংকট প্রবল হয়ে উঠেছে।
কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০১৬ সালের জুন শেষে ব্যাংক খাতে মোট উদ্বৃত্ত তারল্য ছিল এক লাখ ২২ হাজার ৯৩২ কোটি টাকা। ২০১৯ সালের জুন শেষে ব্যাংক খাতে মোট উদ্বৃত্ত তারল্য কমে দাঁড়িয়েছে ৬০ হাজার ৫৪৯ কোটি টাকায়। অর্থাৎ গত চার বছরে ব্যাংক খাতের উদ্বৃত্ত তারল্য কমেছে ৬২ হাজার ৩৮৩ কোটি টাকা।
ব্যাংক কর্মকর্তারা বলছেন, তারল্যের ওপর চাপ বাড়ার কারণে সুদহারও বাড়তির দিকে। আবার বেসরকারি খাতের উদ্যোক্তারা বলছেন, তারা এখনো ব্যাংক থেকে চাহিদামতো ঋণ পাচ্ছেন না। বেসরকারি খাতের উদ্যোক্তাদের আশানুরূপ ঋণ না পাওয়ার চিত্র ফুটে উঠেছে।
প্রতিবেদন অনুযায়ী, গত জুলাইয়ে বেসরকারি খাতে বার্ষিক ঋণ প্রবৃদ্ধি দাঁড়ায় ১১ দশমিক ২৬ শতাংশে। ২০১৩ সালের জুনের পর এটিই সর্বনিম্ন। সে সময় ঋণ প্রবৃদ্ধি ছিল ১১ দশমিক শূন্য ৪ শতাংশ। গত ৬ বছরের মধ্যে বেসরকারি খাতের ঋণ প্রবৃদ্ধি এখন সর্বনিম্ন পর্যায়ে নেমেছে।
তথ্য বলছে, গেল তিন বছর ধরে ঋণ বাড়লেও সেভাবে আমানত বাড়েনি। ২০১৬ সালের জুন থেকে ২০১৭ সালের জুন পর্যন্ত এক বছরে ঋণের তুলনায় আমানত কমেছে ২৩ হাজার ৩৮৮ কোটি টাকা। পরের বছরে (২০১৭ সালের জুন থেকে ২০১৮ সালের জুন) ঋণের তুলনায় আমানত কমেছে ৪২ হাজার ৯২১ কোটি টাকা। আর ২০১৮ সালের জুন থেকে ২০১৯ সালের জুন পর্যন্ত ঋণের তুলনায় আমানত কমেছে ৮ হাজার ৬১৬ কোটি টাকা।
কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্য মতে, ২০১৯ সালের জুন শেষে ব্যাংক খাতে আমানতের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১০ লাখ ৬৪ হাজার ৫৩৬ কোটি টাকা। একই সময়ে ব্যাংকের বিতরণ করা ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১০ লাখ ১০ হাজার ৭৮৫ কোটি টাকা। ২০১৮ সালের জুন শেষে আমানত ছিল ৯ লাখ ৬৮ হাজার ৩০৪ কোটি টাকা। একই সময়ে ঋণের পরিমাণ ছিল ৯ লাখ ৫ হাজার ৯৩৭ কোটি টাকা। ২০১৭ সালের জুন শেষে ব্যাংক খাতে আমানত ছিল ৮ লাখ ৭৭ হাজার ৮৮২ কোটি টাকা। একই সময়ে ঋণের পরিমাণ ছিল ৭ লাখ ৭২ হাজার ৫৯৪ কোটি টাকা। ২০১৬ সালের জুন শেষে আমানতের পরিমাণ ছিল ৭ লাখ ৯৪ হাজার ৩৫২ কোটি টাকা। একই সময়ে ঋণের পরিমাণ ছিল ৬ লাখ ৬৫ হাজার ৬৭৬ কোটি টাকা। সম্পাদনা: রমাপ্রসাদ বাবু




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]