• প্রচ্ছদ » প্রথম পাতা » ব্রিটিশ জাতীয় সঙ্গীত গেয়ে যুক্তরাজ্যের সাহায্য চাইলো হংকং বিক্ষোভকারীরা


ব্রিটিশ জাতীয় সঙ্গীত গেয়ে যুক্তরাজ্যের সাহায্য চাইলো হংকং বিক্ষোভকারীরা

আমাদের নতুন সময় : 16/09/2019

সাইফুর রহমান : হংকংয়ের কয়েকশো বিক্ষোভকারী রোববার ব্রিটিশ কনস্যুলেটের সামনে জড়ো হয়ে ব্রিটেনের প্রতি আহ্বান জানায়, তারা যেন হংকংয়ের প্রতিশ্রুত স্বাধীনতা ফিরিয়ে দিতে চীনকে বাধ্য করে। সায়ত্বশাসনের প্রতিশ্রুতি সত্ত্বেও বেইজিংয়ের নগ্ন হস্তক্ষেপের কারনে গত কয়েক সপ্তাহের আন্দোলনে হংকংয়ের পরিস্থিতি বেশ কয়েকবার সহিংস রুপ নিয়েছে বলে তাদের দাবি। ইয়ন
১৯৮৪ সালের ইঙ্গ-চীন যৌথ চুক্তি অনুযায়ী ১৯৯৭ সালে হংকং চীনের অধিভূক্ত হয়। চীনের মূল ভূখন্ডে ব্যক্তিস্বাধীনতা না থাকলেও এই চুক্তিমতে স্পষ্টভাবে এক দেশ দুই নীতিতে হংকংয়ে তা নিশ্চিত করার প্রতিশ্রুতি ছিল।
বিক্ষোভকারীরা প্রতিশ্রুত ‘এক দেশ দুই নীতি’ হারিয়ে গেছে বলে স্লোগান দেয়। তাদের হাতে শোভা পেয়েছে হংকংয়ের মুক্তি চেয়ে স্লোগান সম্বলিত প্ল্যাকার্ড এবং ব্রিটিশ ঔপনিবেশিক পতাকা। অনেক যুবক হংকং ছেড়ে যাওয়ার আগ্রহ জানিয়ে হংকংয়ের নাগরিকদের জন্য ব্রিটিশ পাসপোর্টের (উপনিবেশ অঞ্চলে) স্ট্যাটাস পরিবর্তনেরও দাবি জানান। বর্তমানে হংকংয়ের নাগরিকরা এই পাসপোর্ট ব্যবহার করে ৬ মাসের ভ্রমন ভিসা পেলেও ব্রিটেনে স্থায়ীভাবে বসবাসের বা কাজের অনুমতি পায় না। ২৫ বছর বয়সী জ্যাকি সাং রয়টার্সকে জানান, ব্রিটেন হংকংয়ের নাগরিকদের অধিকার নিশ্চিত করুক এই দাবি নিয়ে আমি এখানে এসেছি।

এদিকে সিভিল হিউম্যান রাইটস ফ্রন্ট নামে একটি সংগঠন হংকং-এর ভিক্টোরিয়া পার্কে একটি গণসমাবেশের ডাক দিয়েছে কিন্তু সহিংসতার আশঙ্কায় পুলিশ কোনোরকম সমাবেশের অনুমতি দেয়নি। তবে বিক্ষোভকারীরা যেকোনো মূল্যে সমাবেশ করবে বলে জানিয়েছে। সম্পাদনা : আসিফুজ্জামান পৃথিল




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]