• প্রচ্ছদ » সর্বশেষ » মমতার উচিৎ বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী হওয়া এনআরসি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ বিজেপি নেতার


মমতার উচিৎ বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী হওয়া এনআরসি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ বিজেপি নেতার

আমাদের নতুন সময় : 16/09/2019


রাশিদ রিয়াজ : শনিবার বিজেপি নেতা সুরেন্দ্র সিং সাংবাদিকদের বলেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যদি বাংলাদেশের জনগণের সমর্থন নিয়ে রাজনীতি করতে চান তবে তার বাংলাদেশেই চলে যওয়া উচিৎ। মমতার উচিৎ বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী হওয়া। এনআরসি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে এভাবেই কটাক্ষ করলেন বিজেপি নেতা। পশ্চিমবাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বারেবারেই মনে করিয়ে দিয়েছেন যে তিনি তার রাজ্যে এনআরসি করার অনুমতি দেবেন না। সুরেন্দ্র সিং বলেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরোধিতা সত্ত্বেও আসামের মতো পশ্চিমবঙ্গেও জাতীয় নাগরিক পঞ্জী (এনআরসি) করা হবে। এনআরসিতে যারা অবৈধ হবে চিহ্নিত হবেন, তাদেরকে হাতে দুই প্যাকেট করে খাবার ধরিয়ে দিয়ে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানো হবে। মমতা যদি নিজের ভোট ব্যাংক অটুট রাখতে বাংলাদেশিদের রক্ষা করতে চান, তাহলে উনি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী হয়ে যান। মনোভাব না বদলালে প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী চিদাম্বরমের মতো অবস্থা হবে।
সুরেন্দ্র সিং সাংবাদিকদের বলেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের খারাপ দিন ঘনিয়ে আসছে। মুখ্যমন্ত্রীর যদি সাহস থেকে থাকে তাহলে যদি তিনি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী হয়ে যান তাহলে ভালোই হবে। এ সময় হিন্দুদের ধর্মগ্রন্থ রামায়ণ থেকে উদাহরণ টেনে আনেন সুরেন্দ্র সিং। তিনি বলেন, ‘লঙ্কার মানুষ হনুমানজিকে প্রবেশের অনুমতি দেয়নি। তবুও তিনি সেখানে প্রবেশ করেছিলেন এবং লঙ্কা জয় করেছিলেন। একইভাবে যোগী আদিত্যনাথ এবং অমিত শাহও পশ্চিমবঙ্গে প্রবেশ করেছেন এবং অনেকগুলো আসন জয় করেছেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সেই লঙ্কার রাবণ। সেখানে রাম (বিজেপি সরকার) পা রেখেছেন। শিগগিরই পুরো পশ্চিমবঙ্গ জয় করবে বিজেপি।’ সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]