• প্রচ্ছদ » » পুস্তক অনুবাদ এবং কথিত শিক্ষিতদের ফুটানি!


পুস্তক অনুবাদ এবং কথিত শিক্ষিতদের ফুটানি!

আমাদের নতুন সময় : 17/09/2019

রুহুল আমিন : মাননীয় প্রধানমন্ত্রীÑ জগতের কতো কিছুতে আপনি নজর দেন। একবারও কি আপনার নজরে পরে না বিশ্বজোড়া যতোগুলো রাষ্ট্র উন্নত হয়েছে তারা প্রত্যেকে তাদের নাগরিকদের জন্য, তাদের মাতৃভাষায় উচ্চশিক্ষার ব্যবস্থা করেছে প্রথম। তারপর তারা উন্নত হয়েছে। ইসলামিক ফাউন্ডেশন যতোগুলো আরবি-ফারসি বইয়ের অনুবাদ করেছে, আমাদের বাংলা একাডেমি তার শিকি ভাগও ইংরেজি-ফ্রান্সের বিজ্ঞান বিষয়ক বইয়ের অনুবাদ করেনি। আমি জানি এই দেশের শিক্ষিত মানুষগুলো মুর্খদের চাইতেও অধম! তাই তারা এই দেশের গণমানুষের শিক্ষিত হয়ে ওঠার যতো রকম পথ আছে সব বন্ধ করে দেয়ার চেষ্টায় থাকে। দুইপাতা অ-আ ক-খ পড়েই নিজেকে এলিট কিছু একটা ভাবেন আর নিজেকে সাধারণের চাইতে আলাদা ভাবেন। আলাদা ফুটানির অংশ হিসেবেই তারা ইংলিশ-মিডিয়াম-ভার্সন-ক্যাডেট ফুটানি দেখায়।
আপনি ঘরে বাইরে তাদের হাতে বন্দী। তবুও আপনি তো বাংলার ছাত্রী ছিলেন। তাই বাংলা ভাষাটার প্রতি আপনার একটু-আদটু দরদের কথা আশা করতেই পারি। বেশি কিছু চাই না, শুধু কয়েক হাজার পুস্তক বাংলায় অনুবাদ করে প্রকাশ করুন। আমাদের ফুটানি-শিক্ষিতরা এই কাজটাকে অবজ্ঞা করবেন, তবুও জগতে যদি কোনোদিন বাঙালি নিজের পায়ে দাঁড়ানোর সুমতি ধারণ করতে পারে, তখন এই অনুবাদ গ্রন্থগুলো আকড় গ্রন্থ হিসেবে সাহায্য করবে। তারপর নিজেদের লেখা তৈরি হবে। আমার এই লেখাটা সেসব মানুষের জন্য যারা এখনো পাটপঁচা গন্ধ শুনলে থমকে দাঁড়ান, যাদের রাস্তার পাশে চিতই পিঠা দেখলে জিহŸায় জল আসে! কেএফসি বার্গার বাঙালির জন্য নয়! ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]