• প্রচ্ছদ » » শোভন-রাব্বানী ইস্যুটি নিয়ে ট্রল করার পাশাপাশি যে বিষয়গুলো আমাদের ভুলে গেলে চলবে না


শোভন-রাব্বানী ইস্যুটি নিয়ে ট্রল করার পাশাপাশি যে বিষয়গুলো আমাদের ভুলে গেলে চলবে না

আমাদের নতুন সময় : 17/09/2019

সাইনুর রহমান শুভ : ১. গত ডাকসু নির্বাচন। ২. উক্ত নির্বাচনে ছাত্রলীগ কোনো ভোট জালিয়াতি এবং দুর্নীতি করেনি। ৩. যদিও দুর্নীতির দায়ে পদত্যাগ করতে বাধ্য হওয়া জনাব শোভন এবং জনাব রাব্বানী ছাত্রলীগের এই প্যানেল থেকে ডাকসুর দুই শীর্ষ পদের পদপ্রার্থী ছিলেন। ৪. ছাত্র সংগ্রাম পরিষদ তথা ছাত্রলীগ প্যনেলের আরো আট নেতা ভর্তি জালিয়াতি করে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেন। ৬. রোকেয়া হলে ছাত্রলীগ ও হল সংসদ নেত্রীদের ২১ লাখ টাকার নিয়োগ বাণিজ্য এবং কল রেকর্ড ফাঁস। ৫. আমাদের বিশ্বাস করতে হবে, এই শীর্ষ দুই নেতাসহ অন্যান্য নেতা-নেত্রীদের এইসব দুর্নীতি-জালিয়াতি সম্পর্কে ছাত্রলীগের অন্যান্য নেতা-কর্মীরা কিছুই জানতেন না। খবরের কাগজ মারফত তারা ইদানিংকালে এসকল অভিযোগ জানতে পারছেন।
৬. আমাদের আরো বিশ্বাস করতে হবে, ব্যাক্তিগত জীবনে এ সকল ছাত্রলীগ নেতারা জালিয়াতি, সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি, টেন্ডারবাজি প্রভৃতি কার্যক্রম করে থাকলেও নির্বাচনে তাঁর প্রভাব তারা কিছুতেই পড়তে দেয় না। ডাকসুতে তারা দুর্নীতি ও জালিয়াতি ছাড়াই নির্বাচিত হয়েছিলো। ৭. ক্যাম্পাসে ‘‘দুর্নীতির বিরুদ্ধে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়’’ নামে একটা আন্দোলন চলছে (এটা অতো গুরুত্বপূর্ণ না)। ৮. ছাত্রলীগের এসকল দুর্নীতির সাথে খোদ ঢাবির উপাচার্য, ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ডিন ও রোকেয়া হলের প্রভোস্টের সংশ্লিষ্টতা পাওয়া গেছে। ৯. আগামী ডাকসু নির্বাচন। ১০. ট্রল ছাড়াও বেশ কিছু কাজ করা যায় চাইলে। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]