• প্রচ্ছদ » » ডানা মেলে দেশের অর্থ বিদেশে চলে যাচ্ছে


ডানা মেলে দেশের অর্থ বিদেশে চলে যাচ্ছে

আমাদের নতুন সময় : 19/09/2019

সুব্রত বিশ্বাস : দেশের বাইরে বিপুল অর্থ যাচ্ছে। কার্যত ডানা মেলেই এ দেশের অর্থ বিদেশে চলে যাচ্ছে। বেআইনি পথে নয়। আইনি পথেই। এ দেশের লোকেরা বিদেশে টাকা পাঠাচ্ছেন, সম্পত্তি কিনছেন, বিদেশি সংস্থার শেয়ার কিনছেন। এমনিতেই যখন দেশে নতুন লগ্নি আসছে না, তখন এ দেশের ধনী, শিল্পপতিরা বিদেশে কোটি কোটি ডলার পাঠানোয় প্রশ্ন ওঠেছে, চড়া হারের কর, নাকি আয়কর দপ্তরের হেনস্তার ধাক্কায় তারা কি দেশের অর্থনীতি থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছেন? এমনিতেই কি? আইন অনুযায়ী কি, এ দেশের কেউ চাইলে ছেলেমেয়ের বিদেশে পড়াশোনা, আত্মীয়স্বজনের চিকিৎসার খরচ, পর্যটন থেকে শুরু করে শেয়ার বা সম্পত্তি কেনার মতো বিভিন্ন খাতে বছরে মোট কতো লাখ ডলার পর্যন্ত বিদেশে পাঠাতে পারেন? বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার আগে পর্যন্ত বা ২০১৪-১৫’র আগে পর্যন্ত এ দেশ থেকে বছরে গড়ে কতো কোটি ডলার বিদেশে যেতো। এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। খুবই চিন্তাজনক বিষয়। উদ্যোগপতিরা কর্মসংস্থান তৈরি করেন। চড়া হারে কর তাদের টাকাকে বাইরে তাড়িয়ে নিয়ে যাচ্ছে। বড় মাপের সংস্কার প্রয়োজন। আয়কর দপ্তর আস্থা তৈরি করতে হবে। ২০১৮-১৯-এ বিদেশে যাওয়া অর্থের পরিমাণ ছিলো কতো কোটি ডলার। চলতি অর্থবছরে তা কতো কোটি ডলারে পৌঁছেছে বলে অনুমান। কারণ চলতি আর্থিক বছরের প্রথম চার মাসেই এর পরিমাণ কতো কোটি ডলারে পৌঁছেছে। জমানার প্রথম পাঁচ বছরে এ দেশ থেকে বিদেশে যাওয়া অর্থের পরিমাণ কতো কোটি ডলার। বিরোধিরা বলছেন, সরকারের জমানায় অর্থনীতির উপরে লগ্নিকারীরা যে অনাস্থা প্রকাশ করছেন, এটা তারই নমুনা। শুধু বাইরে নয়, ঘরেও এ নিয়ে প্রশ্নের মুখে পড়েছে সরকার। অর্থমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে, কেন এবং কোন যুক্তিতে সরকার এ-জমানার এই ব্যবস্থাকে চালু রেখেছে? দামি বিদেশি মুদ্রার বাইরে যাওয়ার রাস্তা খোলা রয়েছে? সরকারের এই ‘লিবারাইজড রেমিট্যান্স স্কিম’ চালু কি। তার আগে প্রতিটি ক্ষেত্রে ছাড়পত্র নিতে হতো কি। অর্থনীতিবিদেরা বলেছেন, দরজা বন্ধ করা কোনো পথ নয়। দেশের অর্থ বিদেশে কেন লগ্নি হচ্ছে, তা দেখতে হবে। সরকারের আমলে অর্থনীতির অবস্থা কতোখানি খারাপ দেখতে হবে, লোকে অবিশ্বাস্য গতিতে দেশের বাইরে অর্থ নিয়ে যাচ্ছে। সবচেয়ে আগে সরকারকে মেনে নিতে হবে যে দেশে আর্থিক সংকট এসেছে। সরকার এ-জমানায় মানতে নারাজ কি? ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]