• প্রচ্ছদ » » হঠাৎ করে পেঁয়াজের দাম বাড়ার যৌক্তিক কারণ আছে কি?


হঠাৎ করে পেঁয়াজের দাম বাড়ার যৌক্তিক কারণ আছে কি?

আমাদের নতুন সময় : 19/09/2019

মির্জা ইয়াহিয়া

পেঁয়াজের দাম পাগলা ঘোড়ার মতোই ছুটেছে। ৫০ টাকা কেজির পেঁয়াজ এক-দুই দিনের মধ্যে হয়ে গেছে ৮০ টাকা কেজি। ফলে মানুষের মধ্যে নাভিশ্বাস উঠে গেছে। তবু আমাদের খাবার-দাবারে পেঁয়াজ ছাড়া একটি দিনও আসলে চলে না। হঠাৎ করে পেঁয়াজের দাম বাড়ার কারণ কী? মিডিয়ায় যে খবর আসছে তাতে দেখা যাচ্ছে, ভারত পেঁয়াজ রপ্তানির ক্ষেত্রে দাম বাড়িয়ে দিয়েছে। তাতেই বেড়েছে দাম। কথা হচ্ছে দাম বাড়ার পর ভারত থেকে যে পেঁয়াজ এসেছে তা ঢাকা শহরে পৌঁছানোর আগেই কেন বাড়লো পেঁয়াজের দাম। তাই যারা বলেন, দাম বাড়ানোর ক্ষেত্রে সিন্ডিকেটের কোনো কারসাজি নেই, তা আসলে ঠিক নয়। একটি চক্র অবশ্যই অসাধু পথে বেনিফিট করছে। যার কারণে আমাদের এখন অনেক বেশি দাম দিয়ে পেঁয়াজ কিনতে হচ্ছে। পেঁয়াজের কেজি একশ টাকা হওয়ার আগেই আমরা কঠোর পদক্ষেপ দেখতে চাই সরকারের পক্ষ থেকে।
এবার একটু অন্য প্রসঙ্গে বলি… আমাদের বেশি দামের কারণে যদি গ্রামের কৃষক লাভবান হতো, তাহলে একটি কথা ছিলো। কিন্তু আমরা যেসব পণ্য বেশি দাম দিয়ে কিনি সেগুলো থেকে কৃষকরা মোটেই লাভবান হচ্ছে না। লাভবান হচ্ছে মুনাফাখোররা। অথচ কৃষকরা ধানের দাম পায় না, আলুর দাম পায় না। সরকারি-বেসরকারি উদ্যোগে, চাষিদের শ্রমে-ঘামে কৃষি উৎপাদন বেড়েছে। তাই বাম্পার ফলনের খবর আসে মিডিয়ায়। তবে কৃষকদের মুখে হাসি নেই। তারা ফসলের দাম পায় না। এই বছরই আমরা দেখেছি, ধান কাটার লোক পর্যন্ত পাওয়া যায়নি। তার মানে ফসল ফলাতে যে খরচ, বাজারে ধানের দাম ছিলো তার চেয়ে অনেক কম। মৌসুমের সময় তাই কেউ ধান মাঠেই ফেলে রেখেছে। আবার প্রায়ই দেখি রাস্তায় আলু, টমেটো, মুলা… নানা কিছু ফেলে দিয়ে প্রতিবাদ করে কৃষকরা। দাম না পেলেই এটা হয়।
সব মিলিয়ে বলা যায়, আমাদের সরকার ফসল উৎপাদনে সফল। এটা অবশ্যই পজিটিভ দিক। কিন্তু ফসল সংরক্ষণ ও দাম ব্যবস্থাপনায় এখনো পিছিয়ে আছে আমাদের দেশ। অন্যদিকে ভোক্তাদের ঠিকই বেশি দামে কিনে খেতে হচ্ছে সব কিছু। এ অবস্থার পরিবর্তন আনতে হবে। কৃষকের মুখে হাসি ফোটাতে হবে। অন্যদিকে ভোক্তাদের জন্য ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করতে হবে। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]