ম্যাকিনো দ্বীপে গাড়িবহর নিয়ে ভ্রমণে গিয়ে বিতর্কে মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট

আমাদের নতুন সময় : 25/09/2019


রাশিদ রিয়াজ : ম্যাকিনো দ্বীপে রিপাবলিকান নেতাদের সম্মেলনে বক্তব্য রাখতেই মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স গিয়েছিলেন। তাতে কোনো আপত্তি নেই কিন্তু তুমুল বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে তার গাড়ি বহর নিয়ে সেখানে যাওয়ায়। কারণ ওই দ্বীপে গাড়ি নিয়ে যাওয়া বারণ। আর মাইক পেন্স গিয়েছিলেন রীতিমত ৮টি বিশাল গাড়ির বহর নিয়ে। সেখানকার গ্রান্ড হোটেলে গাড়ি বহর নিয়ে ঢুকে পড়ার পর এ বিষয়টি নিয়ে দ্বীপের বাসিন্দাদের মধ্যে তীব্র বিতর্কের সৃষ্টি হয়। মিডিয়াও বিষয়টি লুফে নিয়েছে। ফক্স নিউজ
শুধুমাত্র জরুরি ক্ষেত্রে ম্যাকিনো দ্বীপে গাড়ি চলাচল বৈধ। মিশিগান স্টেট পুলিশ বলছে, নিরাপত্তার কারণেই ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের গাড়ির বহর ম্যাকিনো দ্বীপে ঢুকতে দেয়া হয়েছে। আর এ গাড়ির বহরও মাইক পেন্সের নিরাপত্তা বিবেচনায় অত বড় করা হয়েছে। পুলিশ কর্তা লেফটেন্যান্ট জন বলেন, বর্তমান বিশে^ সন্ত্রাস ও আক্রমণের কথা বিবেচনা করেই মাইক পেন্সের নিরাপত্তার ব্যবস্থা করতে হয়েছে। তাই মাইক পেন্স ম্যাকিনো দ্বীপের প্রচলিত কোনো নিয়ম ভঙ্গ করেননি বলেই তিনি মনে করেন।
মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট প্রথমে হেলিকপ্টারে করে ম্যাকিনো দ্বীপে এসে নামেন। এরপর তাকে গাড়ির বহরে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। তবে ডেমোক্রেট স্টেট সিনেট প্রার্থী জুলিয়া পালভার টুইটারে বলেন, মাইক পেন্সের গাড়ির বহর ম্যাকিনো দ্বীপে যানবাহনের আগ্রাসন সৃষ্টি করেছে। ১৯৭৫ সালে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট জেরাল্ড ফোর্ড যখন ম্যাকিনো দ্বীপ ভ্রমণ করেন তখন তিনি ঘোড়ার গাড়ি ব্যবহার করেন। কিন্তু মাইক পেন্সের সমর্থকরা বলছেন এখন নিরাপত্তা অনেক কঠিন ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। সম্পাদনা : আসিফুজ্জামান পৃথিল




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]