ট্রাম্পের ঠাট্টার জবাব দিলো গ্রেটা থানবার্গ

আমাদের নতুন সময় : 26/09/2019


আসিফুজ্জামান পৃথিল, সাবিহা জামান : জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুদ্ধে এক বলিষ্ঠ কণ্ঠস্বর গ্রেটা থানবার্গ। তার আন্তরিক কর্মকা- সারা বিশ^কে যেমন নাড়িয়ে দিয়েছে, তেমনি লজ্জায় ফেলে দিয়েছে নিজেদের বিশ^ মোড়ল দাবি করেও জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় ভুমিকা না রাখা ব্যক্তিদের। তবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এতে খুব একটা লজ্জিত হয়েছেন বলে মনে হয়না। ট্রাম্প গ্রেটাকে নিয়ে উল্টো মজা করে টুইট করেছেন। তবে এতে মোটেও হতদ্যম হয়নি গ্রেটা। বরং ট্রাম্পের ঠাট্টা করে ব্যবহার করা লাইনই নিজের সামাজিক যোগাযোগ প্রোফাইলে ব্যবহার করেছে সে! রয়টার্স, টাইমস অব ইন্ডিয়া।
জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে ভাষণ দিয়ে সাড়া ফেলে দিয়েছিলেন গ্রেটা। তার দ্বায়িত্ব নিয়ে দেয়া ভাষণ ছিলো আক্রমণাত্মক এবং গুরুত্বপূর্ণ। এই ভাষণের পর রয়টার্সের কাছে দেয়া এক বক্তব্যের ভিডিও শেয়ার করেছিলেন ট্রাম্প। সেখানে তীর্যক ভাষায় লেখেন, ‘তাকে দেখে খুব সুখি এবং তরুণ বালিকা বলে মনে হচ্ছে যে নিজ ভবিষ্যতের দিকে তাকিয়ে আছে। দেখে আমার খুবই ভালো লাগলো।’ ৭৩ বছর বয়সী ট্রাম্পের টুইটের কড়া জবাব দিয়েছে থানবার্গ। সে এই লাইনটিই যোগ করেছে নিজের টুইটার জীবনীতে।
বছর খানেক আগে শুক্রবার করে স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দেয় কিশোরী গ্রেটা। এদিনগুলোতে সে একা সুইডিশ পার্লামেন্টের সামনে অবস্থান ধর্মঘট করে। একসময় সে পরিণত হয় জলবায়ু পরির্তন মোকাবেলায় এক বৈশি^ক মুখে। গ্রেটা থানবার্গকে এ বছরের নোবেল শান্তি পুরস্কারের জন্য মনোনিতও করা হয়েছে। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]