জরুরী আইন ব্যবহার করে বিক্ষোভের সময় মুখোশ নিষিদ্ধ করলো হংকং

আমাদের নতুন সময় : 05/10/2019

আসিফুজ্জামান পৃথিল, হাসনাত কুশল : বিশেষ এক ক্ষমতার প্রয়োগ করে এই নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন হংকংয়ের প্রধান নির্বাহী ক্যারি লাম। তিনি জানিয়েছেন, এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে কারণ, পরিস্থিতি আরো খারাপ থেকে খারাপ হতে দেয়া যায় না। বিবিসি, সিএনএন। তবে এই আইনের বিরুদ্ধে ব্যাপক ক্ষোভ প্রকাশ করছেন বিক্ষোভকারীরা। তারা বলছেস, এটি একটি স্বৈরাচারী সিদ্ধান্ত। পরিস্কারভাবে তারা জানিয়ে দিয়েছেন এই আইন মানবেন না তারা। তবে লাম বলছেন, সাম্প্রতিক সহিংস বিক্ষোভ এই নগরীটিকে ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে গেছে। তিনি এটি হতে দিতে পারেন না। তবে সমালোচকরা বলছেন, এই আইন বাস্তবায়ন করাতে বেগ পেতে হবে হংকং প্রশাসনকে। এক সংবাদ সম্মেলনে ক্যারি লাম বলেন, ‘মুখোশ পরার একমাত্র কারণ, তারা নিজেদের পরিচয় গোপন করতে চায় এবং পুলিশের কাছ থেকে বাঁচতে চায়। এ সিদ্ধান্ত নির্বাহী কাউন্সিলের এক বিশেষ বৈঠকের পর নেয়া হয়েছে। চীনের কেন্দ্রীয় সরকার বিশ^াস করে এই বিধান হংকংয়ের বিক্ষোভকারীদের জন্য সহিংস আচরণে প্রতিবন্ধক হিসেবে প্রভাব ফেলবে এবং পুলিশকে তাদের দায়িত্ব পালনে সহায়তা করবে।’ তিনি জানান, চীনের কেন্দ্রীয় সরকার ১৯২২ সালের আইনের অধীনে যেকোনো ধরনের বিধান ‘জনস্বার্থ বিবেচনায়’ জারি করার অধিকার সংরক্ষণ করে।
এ বিধান কেবল হংকংয়ের জনাকীর্ণ স্থানগুলোতেই কার্যকর করা হবে বলে জানিয়েছে সরকার। হংকংয়ের নির্বাহী কাউন্সিলের সদস্য এবং ক্যারি ল্যামের উপদেষ্টা পরিষদের শীর্ষ কর্মকর্তা রনি টং বৃহস্পতিবার বলেন, হংকংয়ে জরুরি বিধান আনার ফলে তিনি সতর্ক রয়েছেন। কারণ এতে হংকংয়ের আন্তর্জাতিকভাবে কলঙ্কিত হওয়ার আশঙ্কা করেন তিনি। তিনি বলেন, তিনি কারফিউয়ের বিকল্প হিসেবে দেশটির বিক্ষোভে মুখোশ পরা নিষেধাজ্ঞার এ বিধান ‘অনিচ্ছাসত্ত্বেও অনুমোদন’ করেছেন। এ বিষয়ে বড় একটি বেইজিংবিরোধী রাজনৈতিক দলের নেতা জেসপার স্যাঙ বলেন, ‘হংকংয়ের সরকার এখন প্রতিকূল অবস্থার মধ্যে আছে। আর এই প্রতিকূল অবস্থায় যারা তর্ক করে তারা খুব একটা সুবিধা পায় না।’ সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]