• প্রচ্ছদ » শেষ পাতা » ছয় মাসেও দৃশ্যমান নেই অগ্রগতি শিক্ষার্থীদের দাবি বাস্তবায়নে ব্যর্থ হচ্ছে ডাকসু


ছয় মাসেও দৃশ্যমান নেই অগ্রগতি শিক্ষার্থীদের দাবি বাস্তবায়নে ব্যর্থ হচ্ছে ডাকসু

আমাদের নতুন সময় : 07/10/2019

 

শিমুল মাহমুদ : দীর্ঘ ২৮ বছর পর গত ১১ মার্চ অনুষ্ঠিত হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ নির্বাচন। ডাকসু নির্বাচনের সময় শিক্ষার্থীদের কাছে গণরুম সংকট, পরিবহন সমস্যা, ক্যান্টিনের মানোন্নয়নসহ বেশ কিছু ইশতেহার দিয়েছিলেন ছাত্র প্রতিনিধিরা। কিন্তু নির্বাচনের ছয় মাস পরও ইশতেহার বাস্তবায়নে দৃশ্যমান কিছুই করতে পারেনি ডাকসু নেতারা।
সাধারণ শিক্ষার্থীরা বলছেন, লেজুরবৃত্তি রাজনীতি ও গণরুম সংকট সমাধানে কোন ভূমিকা রাখতে পারেনি কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ। প্রত্যেকটা দলই সমস্যা নিয়ে অনেক ইশতেহার দিয়েছিল কিন্তু মূল সমস্যা নিয়ে ডাকসু ঠিকভাবে কাজ করতে পারিনি। নিজ দলের রাজনীতি নিয়েই ব্যস্ত সময় কাটিয়েছে ছাত্রনেতারা। বিশ^বিদ্যালয়ের প্রতি ছাত্রসংগঠন গুলোর সদিচ্ছা ছাড়া ডাকসুকে সচল করা সম্ভব নয় বলেও মনে করছেন অনেকে।
ভিপি নুরুল হক নূর বলছেন, ছাত্রসংসদে ছাত্রলীগের আধিক্য থাকায় এখনো ডাকসুকে সচল করা সম্ভব হয়নি। তিনি বলেন, নির্বাচিত প্রতিনিধি হলে অন্তত এ সমস্যার প্রতিকার হবে। যারা রাজনৈতিক দাসত্ব শিক্ষার্থীদের দিয়ে করিয়ে আসছে তারাই ২৩ জন কিন্তু নেতৃত্বে রয়েছেন।
ডাকসু সদস্য তানভীর হাসান সৈকত বলেন, উপাচার্যকে ১৫ দিনের আলটিমেটাম দিয়েছি। ১৫ দিনের মধ্যে যদি কোনো দৃশ্যমান কিছু করতে না পারেন তাহলে আমরা ভিসি স্যারের বাসায় যাবো।
এজিএস সাদ্দাম হোসেন বলেন, অর্জন অবশ্যই হয়েছে। গণতান্ত্রিক ঢাকা বিশ^বিদ্যালয় নিশ্চিতকরণ ডাকসুর সবচেয়ে বড় অর্জন এবং সেটা আমরা করতে পেরেছি। সকল রাজনৈতিক দল গুলো এখন র্নিবিঘেœ তাদের কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। সাপ্লিমেন্টারি পরীক্ষা চালুর একটা দাবি ছিলো এর সমাধান করতে পেরেছি। তবে এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও ডাকসুর সভাপতি অধ্যাপক মো. আখতারুজ্জামানের সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করে তাকে পাওয়া যায়নি। সম্পাদনা : ওমর ফারুক




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]