টি-টেন লিগের প্রধান কোচের দায়িত্ব পেলেন আফতাব

আমাদের নতুন সময় : 07/10/2019

 

শিউলী আক্তার : এক সময়ে বাংলাদেশ দলে ব্যাটিং ও বোলিংয়ে দারুণ নৈপুণ্য দেখিয়েছিলেন সাবেক ক্রিকেটার আফতাফ আহম্মেদ। কিন্তু সেই ফিটনেস বেশি দিন ধরে রাখতে পারেননি। যার ফলে জাতীয় দলের আর নিয়মিত হতে পারেননি তিনি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের দেশের হয়ে শেষবার জার্সি গায়ে দিয়েছিলেন ২০১০ সালে। তারপর আর সুযোগ হয়নি জাতীয় দলের ফেরার।
এরপর ক্রিকেটকে বিদায় বলে দিয়ে বেঁচে নিয়েছেন কোচিং পেশা। দেশের ঘরোয়া লিগগুলোতে নিয়মিত প্রধান কোচের দায়িত্ব পালন করছেন তিনি। সর্বশেষ প্রিমিয়ার লিগে লিজেন্ডস অব রুপগঞ্জের প্রধান কোচ ছিলেন। তার অধীনে গ্রুপ পর্বে দুর্দান্ত খেলেছিলো দল। যদিও জয়ের কাছে গিয়েও শিরোপা জিততে পারেনি। এর আগে দুই মৌসুম ছিলেন মোহামেডান লিমিটেডের সহকারি কোচ।
এবার আগামী ১০ অক্টোবর থেকে শুরু হতে যাওয়া জাতীয় ক্রিকেট লিগে নিজ বিভাগের দল চট্টগ্রামের হেড কোচের দায়িত্বও রয়েছে আফতাবের কাঁধে। তবে শুধু দেশের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকছে না আফতাবের কোচিং অধ্যায়। দেশের সীমানা ছাড়িয়ে দুবাইয়েও কোচিং করাতে যাবেন তিনি।
তবে দলটা অবশ্যই বাংলাদেশের। দুবাইয়ে এরই মধ্যে ১০ ওভারের ক্রিকেট টুর্নামেন্ট টি-টেন লিগের দুইটি আসর। তৃতীয় আসরে বাংলা টাইগার্স নামে থাকছে বাংলাদেশেরও একটি দল। বিসিবির পরিচালক সিরাজউদ্দিন আলমগীর এই দলের যৌথ মালিকানায় থাকছেন। দলের প্রধান কোচের দায়িত্ব পালন করবেন আফতাব।
আগামী ১৬ অক্টোবর হবে টি-টেন লিগের প্লেয়ার্স ড্রাফট। যেখানে প্রতি দল ১৪ জন ক্রিকেটারকে চুক্তিবদ্ধ করতে পারবে। এর মধ্যে দুইজন আরব আমিরাতের ক্রিকেটার রাখা বাধ্যতামূলক। এছাড়া এ’ ও বি’ ক্যাটাগরি থেকে ৩ জন, সি’ ও ইমার্জিং ক্যাটাগরি থেকে ২ জন এবং অ্যাসোসিয়েট ক্যাটাগরি থেকে ১ জন করে খেলোয়াড় রাখতে হবে। ড্রাফটে থাকা যেকোনো দেশের, যে কোনো খেলোয়াড়কে দলে ভেড়ানো যাবে।
ফলে বাংলা টাইগার্সের মাধ্যমে বাংলাদেশ ক্রিকেটের তরুণ প্রতিভাদের এ টুর্নামেন্টে খেলার সুযোগ হতে পারে। আগামী ২৪ নভেম্বর দুবাইয়ে হবে ৬ দলের এ টুর্নামেন্ট। সম্পাদনাঃ এল আর বাদল




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]