• প্রচ্ছদ » সর্বশেষ » বিশ্বব্যাংক দারিদ্র্যের যে সব তথ্য তুলে ধরেছে তা ২০১৬ সালের, বললেন অর্থমন্ত্রী


বিশ্বব্যাংক দারিদ্র্যের যে সব তথ্য তুলে ধরেছে তা ২০১৬ সালের, বললেন অর্থমন্ত্রী

আমাদের নতুন সময় : 08/10/2019

মো. আখতারুজ্জামান : অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বিশ^ব্যাংকের প্রতিবেদনের বিষয়ে এ মন্তব্য করেন। গতকাল সোমবার রাজধানীর গুলশানের একটি হোটেলে বিশ^ব্যাংকের ‘বাংলাদেশ পোভার্টি অ্যাসেসমেন্ট’ শীর্ষক এক প্রতিবেদন প্রকাশ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
মুস্তফা কামাল বলেন, আমাদের বড় শক্তি হচ্ছে মোট জনসংখ্যার বেশির ভাগে কর্মজীবী মানুষ। সরকারের অন্যতম শত্রু দারিদ্র্য। তবে যারা গরীব থেকে ফিরে এসেছে তাদের আর গরীব হওয়ার সুযোগ নেই। ২০৩০ সালের মধ্যে আমরা ক্ষুধামুক্ত দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ গড়ে তুলবো। এ সময় দরিদ্র মানুষ খুঁজে পাওয়া যাবে না।
এ প্রতিবেদনের তুলনায় বাংলাদেশের বর্তমান চিত্র অনেক ভিন্ন। প্রতিবেদনে যেসব এলাকাকে দারিদ্র বেশি বলে উল্লেখ করা হয়েছে। সে অবস্থান এখন আর নেই।
বিশ^ব্যাংকের প্রতিনিধিদের উদ্দেশ্য অর্থমন্ত্রী বলেন, আপনারা দেখতে পাবেন ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেটে আমরা সেসব এলাকাকে অর্থনৈতিক, সামাজিক ক্ষেত্রে এগিয়ে নিয়ের জন্য বিশেষ পরিকল্পনায় রাখা হয়েছে। তিনি বলেন, আমাদের সরকারের যেভাবে কাজ করছে সেটার আলোকে ২০৩০ সালের মাঝে আমাদের যে স্বপ্ন সেটা আমরা বাস্তবায়ন পারবো।
অর্থমন্ত্রী আরো বলেন, আমাদের টার্গেট ২০২৪ সালের মধ্যে ১০ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন করব। আমরা স্বাভাবিকভাবেই জিডিপিতে ৮ শতাংশের বেশি প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছি। আমাদের অবকাঠামোগত উন্নয়ন হচ্ছে, আমাদের প্রকল্পগুলো বাস্তবায়ন এবং আমাদের তরুণ মানবসম্পদকে কাজে লাগিয়ে বাকি দুই শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন করব। আমাদের লক্ষ্য আমরা সেখানে পৌঁছাতে পারবো। বাংলাদেশি একবার যারা দারিদ্র্য থেকে উঠে এসেছে তারা আর গরিব হবে না, কারণ আমরা বিভিন্ন সেক্টরকে উন্নত করেছি।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ ও ভুটানে নিযুক্ত বিশ্বব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর মার্সি টেম্বন, পরিকল্পনা কমিশনের সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের ড. শামসুল আলম, পরিসংখ্যান ও তথ্য বিভাগের সচিব সুরেন্দ্র নাথ চক্রবর্তী প্রমুখ। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]