• প্রচ্ছদ » » অভিজিৎ বা আবরার হত্যা একই ব্যাপার নয় কি?


অভিজিৎ বা আবরার হত্যা একই ব্যাপার নয় কি?

আমাদের নতুন সময় : 09/10/2019

গুলজার হোসেন উজ্জ্বল : ক্যাম্পাসে আধিপত্যবাদের জন্য খুনোখুনি দেখেছি। দুটি ভিন্ন দলের লড়াইয়ে খুন দেখেছি। এরপর একই রাজনৈতিক দলের ভিন্ন গ্রæপের কাউকে খুন। সেটাও দেখেছি। সেটাও ওই আধিপত্যবাদ। এরপর দেখলাম ভিন্নমতের কাউকে খুন। সেটা অবশ্য ২০১৩ সাল থেকেই দেখছি। এটা হলো মতাদর্শের আধিপত্যবাদ। বøগাররা খুন হতো। অনেকেই জাস্টিফাই করতো। এসব কথা লেখার কি দরকার? কে বলেছে লিখতে? নাস্তিক হলে খুন তো হবেই। বলতো না, এখানে তো মতাদর্শের আধিপত্য চালানো হচ্ছে। এককালে বøগ বা ফেসবুকে ধুমায়ে তর্ক করতাম। বলতাম একদিন বিষয়টা আর ধর্মকেন্দ্রিক থাকবে না। যেকোনো ভিন্নমতই খুনের উপলক্ষ হয়ে যাবে।
অভিজিৎ হত্যা বা আবরার হত্যা একই ব্যাপার নয় কি? যদি আপনি ভাবেন একই নয় তাহলে বুঝবেন আপনি সেই সমাজেরই একজন যে সমাজ খুনিদের জন্ম দেয়, পেলেপুষে বড় করে। যে ছেলেগুলো খুন করেছে তারা কি আসমান থেকে আসছে? আপনার আমারই হীরার টুকরা ছেলে। বুয়েটের পোলা। আপনি বলতে পারেন ‘আপনি কেমন মানুষ। এর ভেতর অভিজিৎ নামের নাস্তিক কুলাঙ্গারকে টেনে আনলেন। আবরার আর অভিজিৎ এক?’ আমি জানি মনে মনে আপনারা অনেকেই এটাই বলছেন। কিন্তু ভেবে দেখুন অভিজিতের বাবা আর আবরারের বাবার মধ্যে কোনো পার্থক্য নেই। দুজন পিতার চোখের পানি একই রকম নোনতা। কেন এসব বলছি? কারণ সমস্যার গভীরে যেতে চাই। ব্যাপারটা আওয়ামী-বিএনপি, ভারত-পাকিস্তান নয়। এটা একধরনের পচন। মনে আছেÑসেই আশির দশকে আবাহনী-মোহামেডান সমর্থকের খুনের কথা? এই সমাজের পরতে পরতে উগ্রবাদের নেশাবীজ ছড়ানো। যেকোনো মত ও পথ উগ্রবাদী হয়ে উঠলে তার চেহারা একই হয়। পরমতসহিষ্ণু হওয়াটা একটা শিক্ষা। প্র্যাক্টিসের বিষয়। এই প্র্যাক্টিস আপনি করেন? করতে দেন? সন্তানকে অষ্টপ্রহর ঘৃণা করতে শেখান। আর খাতায় নম্বর তুলতে শেখান। সম্প্রতি ভারতবিরোধিতার জন্য (ধরেই নিলাম স্ট্যাটাসের কারণে) একজন খুন হলো। দিন থাকলে পাকিস্তানবিরোধিতার জন্যও খুন হয়ে যেতে পারতো কেউ। কে জানে সামনে হবেও হয়তো কোনোদিন। খুনটাই আসল। তার মতাদর্শ আসল নয়। ছেলেটা মরে গেলো। আমার ছেলেটাও কয়েকবছর পর ভার্সিটিতে যাবে। আহারে সোনা ছেলেটা। পুনশ্চ : ৯০ শতাংশ মুসলমানের দেশে নাস্তিক কুলাঙ্গারের ঠাঁই নেই। একটা একটা শিবির ধরো ধইরা ধইরা জবাই করো। দুইটা ¯েøাগান একই রকম মস্তিষ্কজাত। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]