প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হলো শারদীয় দুর্গাউৎসব

আমাদের নতুন সময় : 09/10/2019

ইউসুফ বাচ্চু : দেবী দুর্গার প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব দুর্গা পূজা। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় শোভাযাত্রার মাধ্যমে গোধুলিলগ্নে সদরঘাটের ওয়াইজঘাটের বুড়িগঙ্গা নদীর জলে বিসর্জন দেয়া হয় দুর্গতিনাশিনীকে।
বাংলা পঞ্জিকা অনুসারে এবার গত ২৮ সেপ্টেম্বর মহালয়ার মধ্য দিয়ে শুরু হয় দেবীপক্ষ। এরপর একে একে ষষ্ঠী থেকে দশমী। সবগুলো তিথিতেই রাজধানীর পূজা-পগুলো ছিলো পূজারীদের বিন¤্র প্রার্থণা আর নানান আনুষ্ঠানিকতায় পরিপূর্ণ। পাঁচদিনের মহাকর্মযজ্ঞের পর ধরণীর জন্য দেবী রেখে গেলেন আশির্বাদ আর শিক্ষা। এ শিক্ষা সুন্দর, পরিপাটি-গোছানো মানবজনমের।
সকাল থেকে পূজাম-পগুলোতে চলে অর্চনা, আরতি নৃত্য আর সিঁদুর খেলা। নারীরা প্রতিমাকে সিঁদুর পরার পর একে অন্যকেও সিঁদুর পরান। একই সাথে চলে মিষ্টিমুখ করানো। আনন্দ উৎসবে মুখর হয়ে ওঠে মন্দির আর পূজাম-প প্রাঙ্গণগুলো।
রাজধানীর পূজাম-পগুলোর পাশাপাশি সারাদেশের এ বছর ৩১ হাজার ৩৯৮টি ম-পে দুর্গাপূজার আয়োজন হয়েছে, যা গতবারের চেয়ে ৪৮৩টি বেশি। ঢাকা মহনগরীর ২৩৬ টিসহ ঢাকা বিভাগে ৭ হাজার ২৭১টি ম-পে পূজা হয়।
প্রতিমা বিসর্জনকে কেন্দ্র করে সদরঘাট ও তার আশপাশ এলাকায় নেয়া হয় কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা। এতে র‌্যাব, পুলিশ, নৌ-পুলিশ, কোষ্টগার্ড, ফায়ার সার্ভিসের কর্মীসহ সাদা পোষাকের আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর ব্যপক উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে।
মহানগর সার্বজনীন পূজা কমিটির সাধারণ সম্পাদক শ্যামল কুমার রায় জানান, এবারের পূজা অত্যন্ত শান্তিপূর্ণভাবে পালিত হয়েছে। কোথাও বড় ধরনের কোনো অঘটনের খবর পাওয়া যায়নি। সম্পাদনা : ওমর ফারুক




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]