• প্রচ্ছদ » শেষ পাতা » জম্মু ও কাশ্মীরে পুনর্বাসিত পরিবারগুলো সাড়ে ৫ লাখ রুপি করে ক্ষতিপূরণ পাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর তহবিল থেকে


জম্মু ও কাশ্মীরে পুনর্বাসিত পরিবারগুলো সাড়ে ৫ লাখ রুপি করে ক্ষতিপূরণ পাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর তহবিল থেকে

আমাদের নতুন সময় : 10/10/2019

ইমরুল শাহেদ : পাকিস্তান অধিকৃত জম্মু ও কাশ্মীর থেকে বাস্তুচ্যুত হয়ে ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে আশ্রয় নেয়া পাঁচ হাজার তিনশ’ পরিবারকে পুনর্বাসন তালিকা ‘লিস্ট অব ডিসপ্লেসড পার্সনস’-এ স্থান দিয়ে ভারত শাসিত জম্মু ও কাশ্মীরে পুনর্বাসন করা হচ্ছে। বুধবার তালিকাভুক্ত এইসব পরিবারের প্রত্যেকটিকে প্রধানমন্ত্রীর ডেভেলপমেন্ট প্যাকেজের আওতায় সাড়ে পাঁচ লাখ রুপি করে সহায়তা প্রদানের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। ভারতের কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জাভেদেকার মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকের পর দিল্লিতে এক সংবাদ সম্মেলনে এই ঘোষণা দেন। ইন্ডিয়া টুডে, দি উইক
দি উইকের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকে সহায়তার এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে এবং সহায়তার অর্থ প্রতিটি পরিবার এককালীন পাবে, যাতে তারা স্থায়ী আয়ের ব্যবস্থা করতে পারে। ১৯৪৭ সালে জম্মু ও কাশ্মীরে যারা ঘরবাড়ি চলে গিয়েছিলেন এবং পরে ফিরে এসেছেন তারাও তালিকায় রয়েছেন। ২০১৬ সালের ৩০ নভেম্বর মন্ত্রিপরিষদ যে তালিকা অনুমোদন করেছিল তাতে অনেকেই বাদ পড়েছিলেন। তাদেরকেও বর্তমান তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।
দি উইকের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ১৯৪৭ সালে পাকিস্তান অধিকৃত জম্মু ও কাশ্মীরের ৩১ হাজার ৬১৯টি পরিবার বাস্তুচ্যুত হয়। তাদের মধ্যে ২৬ হাজার ৩১৯টি পরিবার ভারত শাসিত জম্মু ও কাশ্মীরে আশ্রয় নিয়েছে। এরমধ্যে পাঁচ হাজার তিনশ’ পরিবার জম্মু ও কাশ্মীর রাজ্যের বাইরে আশ্রয় নিয়েছে। এর মধ্যে অবশ্য তিন হাজার পাঁচশ’ পরিবার ১৯৬৫ সালের যুদ্ধে এবং ছয় হাজার ৫৬৫ পরিবার ১৯৭১ সালের যুদ্ধে বাস্তুচ্যুত হয়েছে।
জাভেদেকার বলেন, সরকার একটা ঐতিহাসিক ভুলকে ঠিক করছে এবং নিশ্চিত করতে চাইছে বাস্তুচ্যুত পরিবারগুলো উপকৃত হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর ডেভেলপমেন্ট প্যাকেজ ছাতার মতোই জম্মু ও কাশ্মীরের কিছু প্রকল্পে অর্থ প্রদান করবে। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]