হত্যার পর ইয়াবা দিয়ে ‘গণপিটুনির নাটক’ ব্যর্থ

আমাদের নতুন সময় : 10/10/2019

 

মাসুদ আলম : বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে হত্যার পর তার কক্ষে ইয়াবা রেখে ‘গণপিটুনির নাটক’ সাজাতে চেয়েছিল বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এমনকি এই নাটক সাজানোর জন্য ওই রাতে পুলিশ ডেকেও শেরেবাংলা হল চত্বরে ঢুকতেও দেয়নি তারা। তবে আবরারের সহপাঠী ও শিক্ষার্থীদের পাহারা এবং পরবর্তী সময়ে শিক্ষকদের তৎপরতার কারণে তাদের সেই অপচেষ্টা সফল হয়নি। হলের শিক্ষার্থী ও পুলিশের সঙ্গে কথা বলে এসব তথ্য জানা গেছে।
সহপাঠী ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রোববার রাতে আবরারকে ২০১১ নম্বর কক্ষে ডেকে নেয় বিশ^বিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের কিছু নেতাকর্মী। পরে তাকে ওই কক্ষে দফায় দফায় পেটানো হয়। একপর্যায় তার কোনো সাড়াশব্দ না পেয়ে সিঁড়ি ফেলে রাখা হয়। তাদের ধারণা ছিলো আবরার শিবির করে। কিন্তু তার মোবাইল ও ল্যাপটপে শিবিরের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কিছু না পাওয়ার পর তার কক্ষে মাদক রেখে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ দেওয়ার চেষ্টা করেছিলো। তবে সোহরাওয়ার্দী হল শাখা ছাত্রলীগের এক কর্মী বিষয়টি আবরারের কক্ষের অন্য সহপাঠীদের জানিয়ে দেয়। বিষয়টি জেনে ওই নেতাদের চাতুরী ঠেকাতে ১০১১ নম্বর কক্ষটির দরজা জানালা সব বন্ধ করে দেয় এবং পাহারা বসায় শিক্ষার্থীরা। এই অপচেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে ছাত্রলীগই থানায় ফোন দিয়ে জানান হলে শিবির ধরা পড়েছে। পুলিশ আসার পর তাদের হলে ঢুকতে দেয়নি তারা। তার অনেকক্ষণ পর খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসেন প্রভোস্ট, সহকারী প্রভোস্ট, চিকিৎসক মাসুক এলাহীসহ আরো কয়েকজন। তখন ছাত্রলীগ শিক্ষকদের বুঝাতে চেয়েছিলো আবরারের স্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে। শিক্ষকরা আসার পর পুলিশ ঘটনাস্থলে আসেন। সবাই ঘুম থেকে ওঠার পর ছাত্রলীগ ধীরে ধীরে গা ঢাকা দেয়। ভয়ে শিক্ষকরাও ছাত্রলীগের অপকর্মের প্রতিবাদ করতো না।
আরাফাত ও মহিউদ্দিন নামে দুই শিক্ষার্থী বলেন, আবরারকে কাতরানো অবস্থায় দেখার সময় এক ছাত্রলীগ নেতা বলছিলেন, ও নাটক করতাছে। পরে আশপাশের সবাইকে বলি ডাক্তার ম্যানেজ করো। ডাক্তার আসার পর দেখে বললেন ১৫ মিনিট আগে মারা গেছে আবরার। তিন-চার মিনিট আগে যদি সেখানে উপস্থিত হতে পারতেন, তাহলেও হয়তো আবরারকে বাঁচানো যেত। সম্পাদনা : রমাপ্রসাদ বাবু




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]