নতুন গবেষণা, টিকটিকির মতো মানুষের অঙ্গ ‘গজানোর’ ক্ষমতা আছে

আমাদের নতুন সময় : 11/10/2019

আসিফুজ্জামান পৃথিল : টিকটিকি বা স্যালামান্ডারের মতো কেটে ফেলা অঙ্গ আবারও তৈরী করতে পারে না মানুষ। তবে মানুষ নিজের শরীরে থাকা তরুণাস্থি আবারও তৈরী করতে পারে। নতুন এক গবেষণায় এই তথ্য উঠে এসেছে। সিএনএন।
এই গবেষণাটি গত বুধবার সায়েন্স অ্যাডভান্স জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে। এই গবেষণায় প্রমাণ করা হয়েছে অস্থিসন্ধিতে থাকা তরুণাস্থি নিজেকে নিজেই মেরামত করে ফেলতে পারে। এটি টিকটিকি, স্যালামান্ডার এবং জেলিফিশের মতোই একই পদ্ধতিতে কাজ করে। গবেষকরা বলছেন এই আবিস্কার হাড়ের জোড়ার চিকিৎসায় নতুন দিগন্ত উন্মোচিত করবে। স্যালামান্ডারের মতো প্রানীর শরীরে মাইক্রোআরএনএ নামে একটি উপাদান থাকে। এটিই তাদের শরীর মেরামতোর প্রধানতম উপাদান। আমাদের শরীরেও থাকে মাইক্রোআরএনএ। তবে দেহের অন্য স্থানের চেয়ে তরুণাস্থিতে থাকা মাইক্রোআরএনএই অধিক বলশালী।
সবচেয়ে বেশি সক্রিয় মাইক্রোআরএনএ থাকে গোড়ালিতে। আর সবচেয়ে কম থাকে আমাদের কনুই আর পশ্চাৎদেশে। এই গবেষণা আরও বলছেআমাদের শরীরের বিভিন্ন স্থানের তরুণাস্থির বয়স আলাদা! আমাদের গোড়ালির তরুণাস্থি বয়সে তরুণ। কনুইয়ের গুলো মাঝবয়সী আর পশ্চাৎদেশের গুলো বয়স্ক। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]