টাইগারদের সফরের আগে পাকিস্তানে নিরাপত্তা পর্যবেক্ষক দল পাঠাবে সরকার

আমাদের নতুন সময় : 12/10/2019

 

এল আর বাদল : আগামী বছরের জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারিতে পাকিস্তান সফরের কথা রয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের। ওই সফরে রয়েছে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের দুটি টেস্ট ম্যাচ ও ৩টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। এই মুহূর্তে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) ভাবনায় পাকিস্তানের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে। সম্প্রতি পাকিস্তান সফরে গিয়ে ৩টি ওয়ানডে ও ৩টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছে শ্রীলঙ্কা। ২০০৯ সালে পাকিস্তানে শ্রীলঙ্কা দলের বাসে সন্ত্রাসী হামলার পর দীর্ঘ ৯ বছর ধরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বাইরে পাকিস্তান। শেষ পর্যন্ত সে দেশের ক্রিকেট খরায় সেই শ্রীলঙ্কাই জল ঢেলেছে।
গত ৯ বছরে পাকিস্তানে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফেরাতে অনেক চেষ্টা করেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। তাতে অবশ্য একেবারে ব্যর্থও হয়নি পিসিবি। ওয়েস্ট ইন্ডিজ, জিম্বাবুয়ে আর বিশ্ব-একাদশের বিপক্ষে ম্যাচ খেলেছিল পাকিস্তান জাতীয় দল।
কিন্তু এতো কিছুর পরও শঙ্কা থেকেই যায় নিরাপত্তা নিয়ে। সেটাই ভাবাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডকে। যদিও এর আগে নারী ক্রিকেট দল সিরিজ খেলেছিলো পাকিস্তানে গিয়ে। সামনে জাতীয় দলের পাশাপাশি নারী দলেরও সিরিজ রয়েছে পাকিস্তানে।
গতকাল শনিবার বিসিবিতে বাংলাদেশ দলের ভবিষ্যৎ সফর নিয়ে কথা বলে ক্রিকেট অপারেশন্স বিভাগের চেয়ারম্যান আকরাম খান। তার মতে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডও তাকিয়ে আছে সরকারী সংস্থার নিরাপত্তা রিপোর্টের উপর।
তিনি বলেন, পাকিস্তানে খেলতে যাওয়ার আগে সরকারের নিরাপত্তা দল যাবে পাকিস্তানে। তাদের রিপোর্টের নির্ভর করবে পাকিস্তান সফরে যাওয়া না যাওয়া।
আগামী ডিসেম্বরে শুরু হবে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) এর সপ্তম আসর। এর জন্য পাকিস্তান সফরের সূচীতে পরিবর্তন আসবে কী না এমন প্রশ্নে আকরাম খান বলেন, আমাদের শিডিউল তো করা আছে। বিপিএল কখন করবো এটা কিন্তু আমাদের আগেই সিদ্ধান্ত নেয়া। তারপর আমাদের পাকিস্তান সফর আছে সেটাও ফিক্সড করা আছে। এখানে তারিখের কোনও পরিবর্তন হচ্ছে না। সম্পাদনা : রেজাউল আহসান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]