সৌদি আরবের নিরাপত্তায় আরো ৩ হাজার মার্কিন সেনা যাচ্ছে

আমাদের নতুন সময় : 12/10/2019

 

রাশিদ রিয়াজ : আরামকো তেল ক্ষেত্রে ইয়েমেনের হুথিদের হামলার পর সৌদি আরবের আর্থিক ক্ষতি হয়েছে কমপক্ষে ২’শ কোটি টাকা। ইয়েমেনি যোদ্ধাদের পাল্টা আক্রমণে সৌদি আরবের ভাড়াটে সেনারা যুদ্ধ ক্ষেত্র থেকে সটকে পড়েছে। বিপুল রণসম্ভার আটক করে নিয়েছে হুথিরা। এমনি এক প্রেক্ষাপটে যুক্তরাষ্ট্রের কাছে কয়েক দফা সামরিক সহযোগিতা চেয়ে বলে সৌদি আরব। প্রথমে ৫শ মার্কিন সেনা সৌদি আরবে পাঠানোর ঘোষণা আসার পর এপর্যন্ত কয়েক দফায় সর্বশেষ ৩ হাজার মার্কিন সেনা দেশটিতে মোতায়েন করতে যাচ্ছে ওয়াশিংটন। সিরিয়ার উত্তরাঞ্চল থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহার করে নিলেও ট্রাম্প প্রশাসন ইউরোপে আরো ১৫ হাজার মার্কিন সেনা পাঠাচ্ছে। একই সঙ্গে সৌদি আরবে আরো বেশ কয়েক হাজার সেনা ধারাবাহিকভাবে প্রয়োজন অনুসারে পাঠাবে ট্রাম্প প্রশাসন। রয়টার্স/আরটি/মিডিল ইস্ট মনিটর/প্রেসটিভি
সুস্পষ্ট করে ঠিক কত হাজার মার্কিন সেনা সৌদি আরবে মোতায়েন হবে তা জানা না গেলেও আগামী কয়েক মাসে যে এ সংখ্যা আরো বৃদ্ধি পাবে সে আভাস পাওয়া যাচ্ছে। এদিকে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান তেহরান পৌঁছেছেন এবং এরপর তিনি রিয়াদে যাচ্ছেন দুটি দেশের মধ্যে মধ্যস্ততা করতে। ইরান এধরনের মধ্যস্ততাকে স্বাগত জানিয়েছে। এর আগে ইরাকের তরফ থেকে সৌদি আরব ও ইরানের মধ্যে আরেকটি মধ্যস্ততার উদ্যোগ শেষ পর্যন্ত ভেস্তে যায়।
এদিকে পেন্টাগনের একটি সূত্র জানায়, সৌদি আরবে বিমান প্রতিরক্ষা শক্তি বাড়াতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। ইয়েমেন থেকে সম্প্রতি ড্রোন হামলা বৃদ্ধি পাওয়ায় এবং তা প্রতিরোধে সৌদি আরব একরকম ব্যর্থ হওয়ায় এধরনের উদ্যোগ নিয়েছে সৌদি আরব।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]