খালেদা জিয়ার হাত-পা অচল, ডায়াবেটিক আশঙ্কাজনক, জানালেন রিজভী

আমাদের নতুন সময় : 13/10/2019

 

শাহানুজ্জামান টিটু : বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রহুল কবির রিজভী গতকাল বলেন, ‘বেগম খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার আশঙ্কাজনক অবনতি ঘটেছে। অবৈধ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার ব্যক্তিগত প্রতিহিংসায় ৬১৩ দিন যাবত বন্দি করে রেখেছেন তাকে।’ নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘কারাগারে নেয়ার সময় বেগম জিয়া ছিলেন সম্পূর্ণ সুস্থ। দেশনেত্রী এখন হুইল চেয়ার ছেড়ে উঠতে পারেন না। তিনি কারো সাহায্য ছাড়া দাঁড়াতে পারেন না। নিজের খাবার নিজে খেতে পারেন না। মাথার চুলও বাঁধতে পারেন না। তার পোশাকও আরেকজনকে পরিয়ে দিতে হয়। হাত-পা শক্ত হয়ে গেছে। হাত-পায়ের আঙ্গুল ফুলে গেছে।’
রিজভী বলেন, ‘পঁচাত্তর বছর বয়সী নেত্রীর ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণহীন হয়ে জীবন ঝুকিপুর্ণ হয়ে পড়েছে। বারবার ইনস্যুলিন পরিবর্তন এবং ইনস্যুলিনের মাত্রা বৃদ্ধি করার পরেও কোন অবস্থাতেই তার সুগার নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না। কোন কোন সময় এটি ২৩ মিলিমোল পর্যন্ত উঠে যাচ্ছে। শরীরের ওজন অনেকখানি হ্রাস পেয়েছে।’
রিজভী বলেন, ‘চিকিৎসার বিষয়ে আমরা বারবার দাবি করা সত্বেও তাকে দেশের কোন বিশেষায়িত হাসপাতালে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়নি। তার জরুরিভাবে উন্নত চিকিৎসা দরকার।
এক প্রশ্নের জবাবে বিএনপির এই নেতা বলেন, ব্যাথার কারণে রাতে তার ঘুম হচ্ছে না এবং সারাক্ষণ তিনি অস্থির থাকছেন। আর্থ্রাইটিস ও ফ্রোজেন শোল্ডার সমস্যার কারণে স্বাস্থ্যের আরও গুরুতর অবনতি ঘটছে। ঘাড়-মাথা সোজা রাখতে পারছেন না।
রিজভী বলেন, ‘সরকার অমানবিক এবং বেআইনি কাজে এতো অভ্যস্ত হয়ে পড়েছে যে তারা খালেদা জিয়ার বিপদজনক অসুস্থতাও ভ্রুক্ষেপ করছে না। দেশনেত্রীর প্রাণনাশ করার গভীর নীলনকশা বাস্তবায়নে ব্যস্ত অবৈধ সরকার জামিনে বাধা দিয়েই ক্ষান্ত হচ্ছে না, বিএসএমএমইউর পরিচালককে দিয়ে প্রেসব্রিফিংয়ে বলানো হচ্ছে -খালেদা জিয়া ভালো আছেন, তার অবস্থার কোনও অবনতি হয়নি। কতটা অমানবিক হলে এতো বড় মনগড়া কথা তারা বলতে পারেন।’ সম্পাদনা : সালেহ্ বিপ্লব




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]