ছাত্র-শিক্ষক রাজনীতি বন্ধে হাইকোর্টে রিট

আমাদের নতুন সময় : 13/10/2019

 

নূর মোহাম্মদ : দেশের সব শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানে ছাত্র-শিক্ষক রাজনীতি ও র‌্যাগিং বন্ধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে নির্দেশনা চেয়ে রিট দায়ের করা হয়েছে। একই সঙ্গে বুয়েটে খুন হওয়া আবরার ফাহাদের পরিবারকে যথাযথ ক্ষতিপূরণ দেয়ার নির্দেশনা চাওয়া হয়। গতকাল রোববার সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ইউনুস আলী আকন্দ হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এ রিট দায়ের করেন।
আবেদনে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা নিশ্চিতে নির্দেশ দিতে আর্জি ও দেশের সব শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানে রাজনৈতিকভাবে ভিসিসহ শিক্ষক নিয়োগ বন্ধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে। আজ বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি মো. আশরাফুল কামালের বেঞ্চে আবেদনটির শুনানি হতে পারে বলে জানান ইউনুছ আলী।
এছাড়া শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আওয়ামী লীগ ও বিএনপিসহ অন্যান্য রাজনৈতিক দলের অঙ্গ সংগঠন হিসেবে রাজনীতি করা কেন অসাংবিধানিক ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে রুল জারির আরজি জানানো হয়েছে আবেদনে।
আবেদনে মন্ত্রিপরিষদ সচিব, আইন সচিব, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব, স্বরাষ্ট্র সচিব, পুলিশের মহাপরিদর্শক, বুয়েট, ঢাকা, জাহাঙ্গীরনগর, রাজশাহী, চট্টগ্রাম ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বিএনপি চেয়ারপারসনকে বিবাদী করা হয়েছে।
পরে ইউনুছ আলী বলেন, ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের হাতে আবরার ফাহাদ হত্যার ঘটনায় বুয়েটে ছাত্র রাজনীতি নিষিদ্ধ করা হয়েছে। আবরারের নির্মম হত্যাকা-ের পর প্রমাণ হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র রাজনীতি রাখার কোনো যৌক্তিকতা নেই। অন্যান্য পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়েও নিষিদ্ধ করা উচিত।
তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে শক্ষার্থীদের উপর র‌্যাগিংয়ের নামে অমানবিক নির্যাতন চালানো হয়, যা সংবিধানের ১১, ৩১, ৩২, ৩৪, ৩৫(৫), ৩৬, ৩৮, ৩৯ ও ৪০ অনুচ্ছেদ ও ঘোষণাপত্রের লঙ্ঘন। তাছাড়া সংবিধানের ৭, ২৬, ২৭, ২৮, ৩১, ৪০ ও ঘোষণাপত্র অনুযায়ী আওয়ামী লীগ-বিএনপিসহ অন্যান্য রাজনৈতিক দলের অঙ্গ সংগঠন হিসেবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্র রাজনীতি বেআইনি। সম্পাদনা : রমাপ্রসাদ বাবু




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]