• প্রচ্ছদ » সর্বশেষ » দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার হত্যার বিচার চান মন্ত্রীরা


দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার হত্যার বিচার চান মন্ত্রীরা

আমাদের নতুন সময় : 13/10/2019

সমীরণ রায় : বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যা করেছে ক্ষমতাসীন দলের ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠন ছাত্রলীগের কর্মীরা। এ হত্যাকা-ের সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার নিশ্চিত করতে তাৎক্ষনিকভাবে দলটির সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে নির্দেশ দেন। এরই প্রেক্ষিতে ২৩ জনের মধ্যে ১৯ জন আসামী ধরা পড়েছে। তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ডে নিয়েছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। একই সঙ্গে আবরার হত্যাকা-ে সংশ্লিষ্টদের দ্রুত বিচারের দাবিতে কয়েকদিন যাবত বুয়েট ক্যাম্পাসসহ আন্দোলনে উত্তাল ছিলো ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়। পাশাপাশি বিচারের দাবি ওঠেছে রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক অঙ্গনেও। তাদের সঙ্গে সুর মিলিয়েছেন ক্ষমতাসীন দলের মন্ত্রীরা। তারা ‘দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে’ আবরার হত্যার বিচার চেয়েছেন। দ্রুত সময়ের মধ্যে এই হত্যাকা-ের বিচার করা হবে বলেও জানিয়েছেন মন্ত্রীরা।
সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের অপকর্মকারীদের বিরুদ্ধে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, দলীয় পরিচয়ে কেউ অপকর্ম করলে কোনো ছাড় দেয়া হবে না। ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের হাতে বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যাকা-ের সঙ্গে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেয়া হবে। অল্প কয়েকজনের অপরাধের জন্য পুরো সংগঠন দায়ী হতে পারে না। আওয়ামী লীগে কোনো অপরাধীর ঠাঁই হবে না।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, আবরার হত্যাকা- যারা সংঘটিত করেছিলো, তাদের প্রায় সবাইকে ধরা হয়েছে। এ পর্যন্ত ১৯ জনকে আটক করা হয়েছে। ইতিমধ্যে ১ জন ১৬৪ করেছে (স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন)। আমি আগেও বলেছি আজও বলছি, অত্যন্ত দ্রুততার সঙ্গে মামলার চার্জশিট দেয়া হবে।
আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, বুয়েটের ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যা মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির সব ব্যবস্থা করা হবে। এই নৃশংস হত্যাকা-ে যে বা যারাই জড়িত থাকুক, সাবাইকে বিচারের আওতায় আনা হবে।
তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, বুয়েটের ছাত্র আবরার হত্যাকা-ের সঙ্গে জড়িতরা যাতে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি পায় এ জন্য সরকার বদ্ধপরিকর। দেশে অবশ্যই ভিন্নমত থাকবে। ভিন্নমত ছাড়া একটি গণতান্ত্রিক সমাজ হতে পারে না। ভিন্নমতের জবাব আক্রমণ করে হয় না। এটি আমাদের দল ও সরকার কেউই সমর্থন করে না।
শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার হত্যাকা-ের আগেই যদি শিক্ষার্থীদের ওপর অত্যাচার, নির্যাতন ও র‌্যাগিং বন্ধ করলে এই বর্বরোচিত ঘটনা ঘটতো না। এ হত্যাকা-ে আমরা ক্ষুব্ধ ও লজ্জিত। একজন মেধাবীর এমন হত্যাকা- মেনে নেয়া যায় না। হত্যায় জড়িতদের দ্রুততম সময়ের মধ্যে ন্যায় বিচার নিশ্চিত করা হবে।
গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেন, হত্যাকারীরা যে লীগের হোক না কেন, আইনের আওতায় আসতেই হবে। বুয়েটের ছাত্র আবরার হত্যাকা- নিষ্ঠুরতা। সরকারি পর্যায় থেকে অ্যাকশনটা খুব পরিচ্ছন্নভাবে দেখা গেছে। ঘাতকদের দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। মামলা হয়েছে, ১৯জন গ্রেপ্তার হয়েছে। জড়িত কেউই ছাড় পাবে না। সম্পাদনা : আবদুল অদুদ




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]