• প্রচ্ছদ » » সব যুক্তি মানি, কিন্তু নূর শিবির এবং শিবির হলে মাইর জায়েজ?


সব যুক্তি মানি, কিন্তু নূর শিবির এবং শিবির হলে মাইর জায়েজ?

আমাদের নতুন সময় : 14/10/2019

বীথি সপ্তর্ষি

এখন যারা আবরার হত্যার নিন্দা জানাচ্ছেন, তাকে পেটানোর প্রতিবাদ করছেন তাদের বিশাল একটা অংশ ডাকসু নির্বাচনের সময় ‘নুরুরে মারলে খুশি লাগে’ শ্রেণি-প্রগতিশীলতা চর্চার লোকজন। সব যুক্তি মানি, কিন্তু নূর শিবির এবং ‘শিবির হলে মাইর জায়েজ’ বলে রাজনৈতিক সন্ত্রাসের পালে হাওয়া দেয়া প্রতিবাদী। তারাই এখন ‘আবরার শিবির হলেও পেটানোর অধিকার কারও নেই’ শিবিরে যোগ দিয়েছেন। তারাই ‘ফকিরের পোলারে’ বিশ্ববিদ্যালয়ে দেখে মাথা খারাপ হয়ে পেটানো শুরু করেছে ধারণা নিয়ে বুদ্ধিজীবীতার চর্চা করছেন।
পেটানো বা পেটানোর ক্ষমতা চর্চায় তাদের কোনো অসুবিধা নেই, কিন্তু পয়সা না থাকলে যেহেতু ভদ্র-সভ্য হওয়া যায় না, ক্ষমতার অধিকারী হওয়ার নিয়ম নেই। টাকা আর ক্ষমতা যেখানে প্যারালালি চলে সেখানে দোষ অবশ্যই ভ্যানচালক পিতার। তাদেরই বা দোষ দিই কেমনে? ‘বিকল্প নেই’ যুক্তির প্রচলিত ডিসকোর্সে সিস্টেমকে প্রশ্ন করার নিয়মই যে কোথাও নেই। তিনি সর্বময় ক্ষমতার অধিকারী। চিন্তার সব লুপ তার কাছে বন্ধক দিয়ে প্রগতি আর বুদ্ধির চর্চা করলে ভিন্ন আর কিইবা হবে।
এখানে ঋণখেলাপিদের সম্মান দিয়ে সংসদে নিয়ে গিয়ে মন্ত্রী, উপদেষ্টা বানানো হয় আর যার বাড়িতে বিদ্যুৎ সংযোগ নেই তাকে বকেয়া বিদ্যুৎ বিলের মামলায় জেল-হাজতে ঘুরে বেড়াতে হয়। কোটি কোটি টাকা পাচার করা যেখানে নিরঙ্কুশ সম্মান আর ‘সহমত ভাই’ এনে দেয় সেখানে ভ্যানচালক হওয়া পাপ কি, রীতিমতো শাস্তিযোগ্য অপরাধ। আকাশের বাপকে, তার বাপকে, তার বাপের বাপকে বিত্তহীনতার দায়ে শাস্তি দেয়া হোক। আকাশকে প্রথমত : আবরার খুনের দায়ে এবং দ্বিতীয়ত : গরিব ও ছোটলোক ও ফকিন্নি ও বুয়েটে চান্স পাওয়ার অপরাধে শাস্তি দেয়া হোক। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]