খাতুনগঞ্জেও উচ্চ মূল্যে বিক্রি হচ্ছে পেঁয়াজ, দুই প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

আমাদের নতুন সময় : 16/10/2019

অনুজ দেব : চট্টগ্রামে পেঁয়াজের দাম এখনো লাগামহীন। গতকাল মঙ্গলবার খাতুনগঞ্জে প্রতিকেজি ভারতীয় পেঁয়াজ ৮০ থেকে ৮৫ টাকা ও মিয়ানমারের পেঁয়াজ ৭০ থেকে ৭২ টাকায় বিক্রি হয়েছে। গত সোমবার খুচরায় ভারতীয় পেঁয়াজ ৯০ টাকা বিক্রি হলেও মঙ্গলবার বিক্রি হয়েছে ৯৫ থেকে ১০০ টাকা। আর মিয়ানমারের পেঁয়াজ খুচরায় বিক্রি হয়েছে ৭৫ থেকে ৮০ টাকায়। ভোক্তারা বলছেন, বাজারে যে হারে পেঁয়াজের সরবরাহ আছে সে হারে দাম কমেনি। তাই এখনও উচ্চ মূল্যে পেঁয়াজ কিনতে হচ্ছে। খাতুনগঞ্জ হামিদ উল্লাহ মিয়া বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইদ্রিস বলেন, বাজারে পেঁয়াজের সরবরাহ কম। অন্যদিকে, মিয়ানমারের আমদানি করা পেঁয়াজও বেশিরভাগ নষ্ট। ব্যবসায়ীদের গুদামে পেঁয়াজ কম থাকায় স্বাভাবিকভাবে দাম বেড়েছে। এদিকে সোমবার জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভায় চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মো. ইলিয়াস হোসেনের হুঁশিয়ারির পর গতকাল দুপুরে খাতুনগঞ্জে পেঁয়াজের পাইকারি বাজারে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. তৌহিদুল ইসলাম এবং শিরীণ আখতারের নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. তৌহিদুল ইসলাম জানান, পেঁয়াজের দামে লাগাম টানতে খাতুনগঞ্জে অভিযান পরিচালনা করে প্রায় দেড় গুণ বেশি দামে পেঁয়াজ বিক্রির দায়ে দুই আড়তদারকে ২০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। এর আগের অভিযানে সতর্ক করার পর আজকে জরিমানা করা হয়েছে। ফের বেশি দামে পেঁয়াজ বিক্রি করলে আড়ত সিলগালা করে দেয়া হবে। চাক্তাই-খাতুনগঞ্জ ব্যবসায়ীদের সূত্র জানায়, ভারত রপ্তানি বন্ধের ঘোষণা দেয়ার পর থেকে দিনে প্রায় ১৫ হাজার টন পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে। ভারতের পাশাপাশি মিয়ানমার ও মিসর থেকে এসব পেঁয়াজ আমদানি হয়। এখন টেকনাফ স্থলবন্দর দিয়ে প্রতিদিন গড়ে ৫০০-৬০০ টন পেঁয়াজ আমদানি হচ্ছে। প্রসঙ্গত, গত ২৯ সেপ্টেম্বর ভারত বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করার পর থেকে বাজারে পেঁয়াজের দাম অস্বাভাবিক হারে বাড়তে থাকে। গত ১ অক্টোবর খাতুনগঞ্জে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের অভিযানের পর পেঁয়াজের দাম কিছুটা কমলেও গত রোববার থেকে আবারো বাড়তে থাকে পেঁয়াজের দাম। সম্পাদনা : মুরাদ হাসান, ওমর ফারুক




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]