• প্রচ্ছদ » স্ক্রল » আমি চাই নূরুল কবীর দ্রুতই তার ফেসবুক একাউন্ট ফেরত পান, তার কণ্ঠস্বর সোচ্চার থাকুক


আমি চাই নূরুল কবীর দ্রুতই তার ফেসবুক একাউন্ট ফেরত পান, তার কণ্ঠস্বর সোচ্চার থাকুক

আমাদের নতুন সময় : 18/10/2019

প্রভাষ আমিন : আমার দেখা সবচেয়ে সাহসী সাংবাদিক নূরুল কবীর। কারণ তিনি সব সরকারের আমলেই সমানভাবে ভুল-ত্রুটি তুলে ধরেন। বিশেষ করে ১/১১ সরকারের সময় তার সাহস দেখে আমি নিজেই ভয় পেয়েছি মাঝে মধ্যে। তার সব মতের সাথে আমার সবসময় মেলে না। কিন্তু আমি চাই তিনি যেন সবসময় সমান সাহসের সাথে তার কথা বলে যেতে পারেন। তার মতো একজন সাহসী সম্পাদক আমাদের অনুপ্রাণিত করে। তিনি ফেসবুকে তেমন সক্রিয় নন, তবে তার একটি একাউন্ট ছিলো। ফেসবুকে অনেকের স্ট্যাটাসে দেখছি, গত ৫ অক্টোবর থেকে কবীর ভাই তার ফেসবুক একাউন্টে ঢুকতে পারছেন না। এটা হতেই পারে। নিয়মিত অনেকের ক্ষেত্রে এটা ঘটছে। এটা দুইভাবে হতে পারে- ব্যক্তিগতভাবে কেউ তার ফেসবুক হ্যাক করতে পারে অথবা কারও রিপোর্টের ভিত্তিতে ফেসবুক তার একাউন্ট বন্ধ করে দিতে পারে। গত ডিসেম্বরে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ আমার একাউন্ট বন্ধ করে দিয়েছিলো।
এক মাস ধরে তাদের সাথে যোগাযোগ করে নিজের পরিচয় নিশ্চিত করে একাউন্ট ফেরত পেয়েছিলাম। আমার বন্ধুদের অনেকে একাউন্ট আর ফেরতই পাননি। ফেরত দেয়া না দেয়াটা ফেসবুক কর্তৃপক্ষের সন্তুষ্টির ওপর নির্ভর করে। তবে ফেসবুকেই দেখছি, কবীর ভাইয়ের ফেসবুকে একাউন্ট বন্ধের জন্য অনেকেই ‘সরকারের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ’কে দায়ী করছেন।
এটা আমার কাছে অদ্ভূত লেগেছে। হতে পারে, সুযোগ থাকলে সরকার তার কট্টর সমালোচক নূরুল কবীরসহ আরও অনেকের ফেসবুক একাউন্ট বন্ধ করে দিতো। কিন্তু আমি যতোদূর জানি, এখন পর্যন্ত কারও ফেসবুক একাউন্ট বন্ধ করার ক্ষমতা অর্জন করেনি বাংলাদেশ সরকার বা কোনো দেশের সরকার। এটা ফেসবুক কর্তৃপক্ষের এখতিয়ার। যদি এরই মধ্যে ফেসবুকের সাথে বাংলাদেশ সরকারের কোনো গোপন আঁতাত হয়ে থাকে, তবে সেটা আমার জানা নেই। তেমন কিছু হলে কবীর ভাই-ই তার প্রথম শিকার। তবে আমার মনে হয় না, তেমন কিছু সম্ভব। এমন ধারণাও দেয়া হচ্ছে, ১০০ জন দাবি জানালেই নূরুল কবীর তার একাউন্ট ফেরত পাবেন। এটাও হাস্যকর মনে হচ্ছে। দাবিটা কার কাছে জানাতে হবে? যদি সরকার বন্ধ করেই থাকে, ১০০ জন বললেই সেটা খুলে দেবে, এমন মনে করার কোনো কারণ নেই। আর ফেসবুক করলে ১০০ কেন এক লাখ লোক দাবি করলেও লাভ হবে না। এটা যার একাউন্ট তাকেই ফেসবুকের সাথেই যোগাযোগ করতে হবে। এ ক্ষেত্রে কবীর ভাই কোনো আইটি বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিতে পারেন। আমি দাবি জানাচ্ছি না। কারণ কার কাছে দাবি জানাবো সেটা জানি না, দাবি জানিয়ে লাভও হবে না। তবে আমি চাই নূরুল কবীর দ্রুতই তার একাউন্ট ফেরত পান। তার কণ্ঠস্বর সোচ্চার থাকুক। আমাদের সবাইকে প্রতিবাদ জারি রাখতে হবে। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]