দূষণ থেকে বাঁচতে সরকারি কর্মসময় বদলাচ্ছে দিল্লি

আমাদের নতুন সময় : 18/10/2019

 

আসিফুজ্জামান পৃথিল : কিছুতেই নিয়ন্ত্রণে আনা যাচ্ছে না দিল্লির বায়ুদূষণ। বরং গত কয়েকদিন ধরেই বায়ুমানের সূচক বা এয়ার কোয়ালিটি ইন্ডেক্স ক্রমশ নীচের দিকে নামছে। এই অবস্থায় দূষণের ক্ষতি এড়াতে দিল্লির সমস্ত অফিসের সময় বদলানোর পরিকল্পনা নিয়েছে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের সরকার। ইয়ন নিউজ, আনন্দবাজার।
রিপোর্ট অনুযায়ী, বৃহস্পতিবার দিল্লির কনট প্লেসে একিউএল ৩৯১ মাত্রা ছুঁয়ে ফেলেছে। একিউএল ০ থেকে ৫০ এর মধ্যে থাকলে তা ভালো হিসাবে চিহ্নিত করা হয়। ৫১ থেকে ১০০ পর্যন্ত সন্তোষজনক, ১০১ থেকে ২০০ পর্যন্ত ‘মডারেট’, ২০১ থেকে ৩০০ পর্যন্ত ‘খারাপ’ , ৩০১ থেকে ৪০০ পর্যন্ত ‘খুব খারাপ’ এবং ৪০১ থেকে ৫০০ পর্যন্ত ‘বিপজ্জনক’ । কনট প্লেসে একিউএল -এর কাঁটা ৩৯১ ছুঁয়েছে, যার অর্থ দূষণের মাত্রা অত্যন্ত বেশি। দূষণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সমস্ত সরকারি অফিসের সময় বদলানোর পাশাপাশি দিল্লির রাস্তায় জোড়-বিজোড় পরিবহণ নীতি ফেরানোরও পরিকল্পনা নিয়েছেন কেজরীওয়াল। এই নিয়মে একদিন চলবে জোড় সংখ্যার গাড়ি আরেকদিন বিজোড় সংখ্যার গাড়ি।
২০১৬ সালে দিল্লিতে বায়ুদূষণ প্রবল ভাবে বেড়ে যাওয়ায় প্রথম বার জোড়-বিজোড় নীতি হাতে নিয়েছিল কেজরিওয়াল সরকার। তখন বন্ধ রাখা হয়েছিল সব রকম নির্মাণ কাজ, কয়লানির্ভর শিল্প ও কল-কারখানা। ব্যক্তিগত গাড়ির বদলে গণ পরিবহণ ব্যবহারের আর্জি জানানো হয়েছিল। তার জন্য বাড়িয়ে দেয়া হয়েছিল সব রকম গণ পরিবহণের সংখ্যা। অতিরিক্ত ট্রেন ও মেট্রো চালানো হয়েছিল। এ বারেও পরিস্থিতি বুঝে সেই ব্যবস্থা নিতে পারে সরকার। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]