জলে, স্থলে ও আকাশে পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্রের অনুশীলন রাশিয়ার

আমাদের নতুন সময় : 19/10/2019

 

রাশিদ রিয়াজ : রাশিয়ার আর্কটিক অঞ্চলে পরমাণু ওয়ারহেডবাহী ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থার পরীক্ষা সম্পন্ন করলো মস্কো। বৃহস্পতিবার প্রেসিডেন্ট পুতিন মস্কোর জাতীয় প্রতিরক্ষা নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্র পরিদর্শন করেন এবং এ সময় তিনি ভিডিও ট্রান্সমিশনের মাধ্যমে আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থার পরীক্ষা পর্যবেক্ষণ করেন। রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানায়। আরটি/ স্পুটনিক।
রাশিয়ার সামরিক বাহিনীর মহড়া চলার পাশাপাশি এই ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থার পরীক্ষা করা হলো। রুশ কর্তৃপক্ষ এ মহড়ার নাম দিয়েছে বজ্রপাত-১৯। মহড়া উপলক্ষে রাশিয়ার সেনারা একই সঙ্গে ২০০টি ক্ষেপণাস্ত্র লাঞ্চার মোতায়েন করে। মহড়ায় অংশ নেয় ১২ হাজার রুশ সেনা। এছাড়া, পাঁচটি পরমাণু শক্তিচালিত সাবমেরিন, ১০৫টি যুদ্ধবিমান এবং ২১৩টি ক্ষেপণাস্ত্র লাঞ্চার মহড়ায় যুক্ত ছিল। রাশিয়ার পশ্চিমাঞ্চলীয় আর্কটিক সমুদ্র্রবন্দর এলাকায় এই মহড়া চালানো হয়েছে। মহড়া পরিদর্শনের সময় প্রেসিডেন্ট পুতিনের সঙ্গে ছিলেন রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগু। তিনি বলেন, এই মহড়ার মধ্য দিয়ে সশস্ত্র লড়াই এবং পরমাণু যুদ্ধের জন্য সামরিক বাহিনীর প্রস্তুতি যাচাই করা হলো। তিনি জানান, রাশিয়ার সশস্ত্র বাহিনী অত্যন্ত নিখুঁত পরমাণু মোতায়েন করছে। মহড়ার সময় ব্রেন্ট সাগর এবং ওখোস্তক সাগর মোতায়েন সাবমেরিন ও যুদ্ধজাহাজ থেকে ক্রুজ এবং ব্যালেস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ছোঁড়া হয়। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]